সোমবার ২৯ নবেম্বর ২০২১
Online Edition

ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আইনী লড়াই শুরু করল ম্যাসাচুসেটস

১ ফেব্রুয়ারি, প্রেসটিভি : যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্য ম্যাসাচুসেটস প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ৭টি মুসলিম দেশের অভিবাসী নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আইনী লড়াই শুরু করেছে। এ্যাটর্নি জেনারেল মৌরা হেলি গত মঙ্গলবার বলেছেন, ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যে এককভাবে ও কেন্দ্রীয়ভাবে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে দুটি মামলা করেছে। এর একটি অর্থাৎ ‘ফেডারেল ল’স্যুট’ করা হয়েছে গত শুক্রবার।
এর আগে ম্যাসাচুসেটস অঙ্গরাজ্যের রাজধানী বোস্টনে এক বিচারক ট্রাম্পের মুসলিম অভিবাসী নিষিদ্ধ আইনের ওপর ৭ দিনের জন্যে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। নিউইয়র্কে জন এফ কেনেডি বিমানবন্দরে নিষিদ্ধ ঘোষিত ৭টি মুসলিম দেশের অভিবাসীদের মধ্যে থেকে অন্তত ২’শ জনকে আটক করলে স্থানীয় একটি আদালত ট্রাম্পের ওই নিষেধাজ্ঞার ওপর স্থগিতাদেশ দেয়। এ মাসের শেষ দিকে আদালত বিষয়টি নিয়ে পুনরায় শুনানি শুরু করবে। ওয়াশিংটনের অনুকরণে যুক্তরাষ্ট্রের উপকূলীয় অঙ্গরাজ্য ম্যাসাচুসেটস ট্রাম্পের মুসলিম অভিবাসী নিষিদ্ধের বিরুদ্ধে মামলা করার পর বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের এ্যাটর্নি জেনারেলরা মিলিতভাবে এধরনের আইনী লড়াইয়ে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর আগে যুক্তরাষ্ট্রের এ্যাটর্নি জেনারেল শ্যালি ইয়েটসকে বরখাস্তের পর নতুন এ্যাটর্নি জেনারেল নিয়োগ দিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।
গত শুক্রবার ট্রাম্প ইরাক, ইরান, সিরিয়া, সোমালিয়া, ইয়েমেন, সুদান, লিবিয়ার মুসলিম অভিবাসীদের যুক্তরাষ্ট্রের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। ম্যাসাচুসেটস ক্যাপিটালকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে এ্যাটর্নি জেনারেল মৌরি হেলি বলেন, নির্বাচনী প্রচারণার সময় ট্রাম্প মুসলিমদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলেছিলেন। এবং তিনি তার ওয়াদা ভালভাবেই পূরণ করেছেন।
মৌরি হেলি আরো বলেন, গত তিনদিন আমার অফিস ট্রাম্পের এধরনের নিষেধাজ্ঞা ও তার নির্দেশনা এবং এর প্রভাব কি ধরনের হতে পারে তা নিয়ে পরীক্ষা করেছে। এটা স্পষ্ট যে ট্রাম্পের এধরনের নিষেধাজ্ঞা ক্ষতিকর, বৈষম্যমূলক ও অসাংবিধানিক। জাতিগত ও ধর্মীয় পরিচয়ের ওপর নির্ভর করে এধরনের বৈষম্য সৃষ্টি করা হচ্ছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ