মঙ্গলবার ১৭ মে ২০২২
Online Edition

নিখোঁজ শাপলাকে পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিন

গাইবান্ধা : আইন শৃংখলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া নলডাঙ্গা ইউনিয়ন যুবদলের সহসাধারণ সম্পাদক নিখোঁজ শফিউল ইসলাম শাপলার ৯ দিনেও সন্ধান মেলেনি। বুধবার গাইবান্ধা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে নিখোঁজ শাপলাকে ফিরিয়ে দেয়াসহ এর প্রতিকারের দাবি জানানো হয় -সংগ্রাম

গাইবান্ধা সংবাদদাতা : আইন শৃংখলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া নলডাঙ্গা ইউনিয়ন যুবদলের সহ-সাধারণ সম্পাদক নিখোঁজ শফিউল ইসলাম শাপলার ৯ দিনেও সন্ধান মেলেনি। বুধবার গাইবান্ধা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক সম্মেলনে তার পরিবারের পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে নিখোঁজ শাপলাকে ফিরিয়ে দেয়াসহ এর প্রতিকারের দাবি জানানো হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন শাপলার স্ত্রী সাথী বেগম। বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, ১০ জানুয়ারি সকাল ১১টায় সাদুল্যাপুর উপজেলার নলডাঙ্গার রেলগেট ও কাচারীবাজার এলাকা থেকে শফিউল ইসলাম শাপলাকে সাদা পোশাকে আইন শৃংখলা বাহিনীর পরিচয়ে তুলে নিয়ে যায়। সংবাদপত্রে প্রকাশিত সূত্র থেকে জানা যায়, জামায়াত-শিবিরের মনিরুল ইসলাম রতনকে গ্রেফতার করার পর তার সাথে সংশ্লিষ্টতা আছে কিনা তা নির্ণয় করতে শাপলাসহ ৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ ঘটনায় সাদুল্যাপুর থানায় গত ১১ জানুয়ারি একটি অভিযোগ ও ১৪ জানুয়ারি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। ডিবি ও র‌্যাব অফিসে খোঁজ এবং সাদুল্যাপুর থানার ওসির সাথে যোগাযোগ করেও কোন প্রতিকার পাওয়া যায়নি।
ফলে একমাত্র  ৩ বছরের শিশু কন্যাকে নিয়ে স্ত্রী ও পরিবার পরিজন চরম হতাশায় দিনাতিপাত করছে। সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন নিখোঁজ শফিউল ইসলাম শাপলার আমিরুল ইসলাম, ভাই সাইফুল ইসলাম রনি, মোয়াজ্জেম হোসেন, মনিরুজ্জামান মনজু, মোমেনা বেগম, রিমা খাতুন, ফুলমিয়া মন্ডল, রুমি বেগম, জুলেখা খাতুন, কাজল রেখা বেগম, শিরিনা বেগম, বেবি বেগম প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ