বৃহস্পতিবার ০২ ডিসেম্বর ২০২১
Online Edition

প্যাকেজ ঘোষণা ছাড়াই শুরু হলো সরকারি ব্যবস্থার প্রাক-হজ্ব নিবন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার: চলতি বছরের হজ্ব চুক্তি ও হজ্ব প্যাকেজ ঘোষণা ছাড়াই শুরু হয়েছে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ্ব করতে আগ্রহীদের প্রাক-নিবন্ধন। গতকাল রোববার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মন্ত্রী মতিউর রহমান এই কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। বেসরকারি হজ্বযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন আগামী মাসে শুরু হবে বলে জানানো হয়েছে।
ধর্মমন্ত্রী বলেন, সৌদী সরকার হজ্ব পালনে পূর্ণ কোটা দেবে, এজন্য এবার বাংলাদেশ থেকে অতিরিক্ত ২৫ হাজার মানুষ হজ্বে যেতে পারবেন। সৌদি কর্তৃপক্ষ ইলেকট্রনিক হজ্ব ব্যবস্থাপনা চালু করেছে। এর সঙ্গে সমন্বয় এবং হজ্ব ব্যবস্থাপনাকে স্বচ্ছ, জবাবদিহি এবং গতিশীল করতে আমরা গত বছর প্রথমবারের মতো প্রাক-নিবন্ধন পদ্ধতি চালু করেছিলাম। গত বছর এক লাখ ৪০ হাজার ৯৯৪ জন প্রাক-নিবন্ধন করেছিলেন। এর মধ্যে এক লাখ এক হাজার ৮২৯ জন হজ্বে গিয়েছিলেন। অতিরিক্ত হজ্বযাত্রীরা ২০১৭ সালের জন্য নিবন্ধিত হয়েছিলেন। এ বছর সেই হজ ¡যাত্রীরা অগ্রাধিকার পাবেন। গত বছরের তালিকার পর থেকে এ বছর প্রাক-নিবন্ধন শুরু হবে।
মতিউর রহমান আরো বলেন, এবার সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ্বযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হবে ৫ হাজার ৪০২ নম্বর সিরিয়াল থেকে। বেসরকারি ব্যবস্থ্পানায় হজ্বযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন শুরু হবে এক লাখ ৪০ হাজার ৯৯৫ নম্বর সিরিয়াল থেকে।
জিলহজ মাসের চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ১ সেপ্টেম্বর পবিত্র হজ্ব শুরু হবে।
প্রাক-নিবন্ধন কার্যক্রম কতদিন চলবে-এমন প্রশ্নের জবাবে ধর্মমন্ত্রী বলেন, এটা চলতে থাকবে। শেষ হলে জানিয়ে দেওয়া হবে।’
বেসরকারি নিবন্ধন কবে থেকে শুরু হবে- এ বিষয়ে মতিউর রহমান বলেন, সৌদি আরবের সঙ্গে হজ্ব চুক্তি করে ফিরে এসে নিবন্ধনের তারিখ জানাব। ১ ফেব্রুয়ারি হজ্ব চুক্তি হবে।’
ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্টদের প্রশিক্ষণ সম্পন্ন হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, প্রাক-নিবন্ধন কাজ শুরু করতে ইতোমধ্যে আমরা হজ্ব কার্যক্রম পরিচালনার জন্য ৯৬৪টি বৈধ হজ্ব এজেন্সির তালিকা প্রকাশ করেছি। অনুমোদিত ২৫টি ব্যাংকের তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।
যুগ্মসচিব মতিউর রহমান ও তার স্ত্রী শাহনাজ বেগমের প্রাক-নিবন্ধনের কাগজ হস্তান্তর করে ধর্মমন্ত্রী প্রাক-নিবন্ধন কার্যক্রম আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করেন।
সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ্বে যেতে চাইলে ৩০ হাজার টাকা দিয়ে প্রাক-নিবন্ধন করতে হবে। জেলা প্রশাসক অফিস, ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কার্যালয় ও ঢাকায় হজ্ব পরিচালকের অফিস থেকে প্রাক-নিবন্ধন করা যাবে।
প্রাক-নিবন্ধন করতে জাতীয় পরিচয়পত্র, (১৮ বছরের কম হলে জন্ম নিবন্ধন সনদ), প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য প্রবাস-সংক্রান্ত কাগজপত্র, মোবাইল ফোন নম্বর প্রয়োজন হবে।
হজ্বে পূর্ণ কোটা পাচ্ছে বাংলাদেশ : চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে কতজন হজ্বে যেতে পারবেন- সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে ধর্ম সচিব মো. আব্দুল জলিল বলেন, সৌদি সরকার একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছে, মোট মুসলিম জনসংখ্যার ভিত্তিতে কোটার ২০ শতাংশ বন্ধ ছিল, এটা এবার ওপেন হয়ে যাবে। সে অনুযায়ী এবার এক লাখ ২৫ হাজারের বেশি বাংলাদেশী হজ্বে যেতে পারবে। যদি এটা বাস্তবায়িত হয়।
হারাম শরীফের সংস্কারের জন্য গত কয়েক বছর ধরে বিভিন্ন দেশের হজ্বযাত্রী কোটা ২০ শতাংশ কমিয়েছিল সৌদি সরকার। কোটার ২০ শতাংশ কম থাকায় বাংলাদেশ থেকে ১ লাখ এক হাজার ৭৫৮ জন হজ্বে যেতে পারতেন।
গত বছর প্রাক-নিবন্ধন ছাড়াই ৭৫১ জন হজ্বে গেছেন। এজন্য কারা দায়ী, তদন্তের সর্বশেষ কি অবস্থা- সাংবাদিক জানতে চাইলে সচিব বলেন, ‘এ বিষয়ে দুটি তদন্ত হয়েছে। প্রতিবেদন পেয়ে গেছি। মন্ত্রীর কাছে প্রতিবেদন উপস্থাপিত হবে। নির্দেশনা মোতাবেক ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’
গত বছর হজ্বে অনিয়মের দায়ে অভিযুক্ত এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা শিঘ্রই চূড়ান্ত করা হবে বলেও জানান সচিব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ