মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

রাজশাহীতে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর পিও ‘মদ্যপ অবস্থায়’ আটক

রাজশাহী অফিস : রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি মাহফুজুল আলম লোটনের বাড়িতে গিয়ে গালাগালি করার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে মদ্যপ অবস্থায় আটক করেছে পুলিশ। তার নাম জোবায়ের হাসান রুবন। তিনি পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিও)। পরে অবশ্য তাকে থানা থেকেই ছেড়ে দেয়া হয়।

গত শনিবার দিবাগত রাতে নগরীর কাদিরগঞ্জ এলাকা থেকে বোয়ালিয়া মডেল থানা পুলিশ রুবনকে আটক করে। পরে গতকাল রোববার দুপুর ২টার দিকে তাকে ছেড়ে দেয় পুলিশ। জানা গেছে, রুবন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা। তাঁর বাবা অ্যাড. মোজাফফর আহম্মদ রাজশাহী মহানগর আ’লীগের সাবেক সভাপতি। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম তাকে ব্যক্তিগত কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেন। সাম্প্রতিক সময়ে রুবন তাঁর ফেসবুক পাতায় ‘হাইব্রিড’ আওয়ামী লীগসহ মহানগর আ’লীগের কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে স্ট্যাটাস দেন। এতে লোটন ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার এক কর্মকর্তার সঙ্গে তাঁর দ্বন্দ্ব শুরু হয়। রাজশাহী মহানগর পুলিশ জানায়, আটকের সময় রুবন মদ্যপ অবস্থায় ছিলেন। শনিবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১২টার দিকে তিনি মহানগর আ’লীগের সহসভাপতি মাহফুজুল আলম লোটনের কাদিরগঞ্জের বাড়িতে গিয়ে গালাগালি শুরু করেন। একপর্যায়ে তিনি জোর করে বাসায় প্রবেশের চেষ্টা করেন। এ অবস্থা চলে রাত দেড়টা পর্যন্ত। আ’লীগ নেতার পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে বোয়ালিয়া পুলিশ লোটনের বাসার সামনে থেকে তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, রুবনের বাড়িও নগরীর কাদিরগঞ্জ এলাকায়। আওয়ামী লীগ নেতা লোটনের সঙ্গে তাঁর আত্মীয়তার সম্পর্ক রয়েছে। পুলিশ জানায়, বিষয়টি রুবনের পরিবারের পক্ষ থেকে আপসের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে। দুই পক্ষ একমত হলে রুবনকে উপযুক্ত অভিভাবকের জিম্মায় দেয়া হবে। আ’লীগ নেতা লোটন আটক রুবনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দিলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষয়টি রাজনৈতিক নয়, পারিবারিক কিছু ঘটনার জের হতে পারে।

রাজশাহীতে আটক ৪৬ মাদকদ্রব্য উদ্ধার :  গতকাল রোববার ভোর পর্যন্ত রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের অভিযানে মোট ৪৬ জনকে আটক করা হয়। রাজশাহী মহানগরীর ৪টি থানা ও ডিবি পুলিশ মহানগরীর বিভিন্নস্থানে অভিযান চালিয়ে বোয়ালিয়া মডেল থানা ১৫ জন, রাজপাড়া থানা ১৪ জন, মতিহার থানা ১০ জন, শাহমখদুম থানা ৩ জন, ডিবি পুলিশ ৪ জনকে আটক করে। 

মহানগর পুলিশের মুখপাত্র জানান, এদের মধ্যে ১৫ জন ওয়ারেন্টভুক্ত আসামী, ৯ জন মাদক ব্যবসায়ী ও অন্যান্য অপরাধে ২২ জন গ্রেফতার হয়। এসময় বেশকিছু পরিমাণ মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ