শনিবার ০৮ আগস্ট ২০২০
Online Edition

নিখোঁজের দুইদিন পর তেরখাদা উপজেলা চেয়ারম্যানের সহকারী এমদাদুল উদ্ধার

খুলনা অফিস : নিখোঁজের দুইদিনপর খুলনার তেরখাদা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু’র ব্যক্তিগত সহকারী ও কাটেঙ্গা গ্রামের মৃত মাওলানা সাইফুল্লাহ মোল্যার জ্যেষ্ঠপুত্র মোল্যা এমদাদুল হককে উদ্ধার করা হয়েছে। গত ১০ জানুয়ারি রাত সাড়ে ১১টার দিকে খুলনার গল্লামারী এলাকা থেকে ডিবি পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। এমদাদুল হক গত ৮ জানুয়ারি বিকেল ৫টার দিকে নিখোঁজ হন। ঐদিন এমদাদ তেরখাদা  ব্যাংক থেকে পে-অর্ডার ভাঙ্গিয়ে চেয়ারম্যানের বাসায় যান এবং কেয়ারটেকার মিজানের নিকট থেকে চারটি কম্বল নিয়ে এমদাদ তার ভাই ছানাউল্লাহ’র কাছে দিয়ে তিনি বিকেলের দিকে খুলনার উদ্দেশ্যে রওনা হন। পরে তার সাথে আর যোগাযোগ হয়নি।
এ ব্যাপারে এমদাদের স্ত্রী মোসা. সাবিনা ইয়াসমিন তেরখাদা থানায় জিডি করেন। জিডি নং-৩৭৯, তারিখ-০৯/০১/২০১৭ইং। উপজেলা চেয়ারম্যান ও এমদাদের পরিবারের সদস্যরা এমদাদকে সুস্থভাবে ফিরে পাওয়ার জন্যে  পুলিশ, র‌্যাব এবং ডিবি পুলিশকে অবহিত করেন।  ডিবি পুলিশ দীর্ঘ খোজাঁখুজির পর গত ১০ জানুয়ারি রাতে তাকে উদ্ধার করেন।
ডিবির ওসি সিকদার আক্কাস আলী জানান, এমদাদ তার স্ত্রী ও সন্তানদের প্রতি অভিমান করে ভারতে গমনের উদ্দেশ্যে রওনা করে এবং সে সাতক্ষীরার  কালিগঞ্জ তার এক আত্মীয়ের বাসায় দুইদিন অবস্থান করে। ছেলে মেয়ের জন্যে খারাপ লাগার কারণে সে ঐদিন খুলনায়  ফিরে আসে। সংবাদ পেয়ে তাকে গত ১০ জানুয়ারি রাতে গল্লামারি থেকে উদ্ধার করা হয়। তিনি বলেন, এমদাদকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে ১১ জানুুয়ারি রাতে তেরখাদা উপজেলা চেয়ারম্যান মো. সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু ও তার পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। গত ১১ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৯ টার দিকে মোল্যা এমদাদুল হকের সাথে কথা হলে তিনিও একই কথা বলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ