সোমবার ০৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ইউরোপের সঙ্গে আমেরিকার চিরস্থায়ী সম্পর্কের গ্যারান্টি নেই -জার্মানি

১৩ জানুয়ারি, পার্স টুডে : জার্মান চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মার্কেল বলেছেন, ইউরোপীয় ইউনিয়নের সঙ্গে আমেরিকার চিরস্থায়ী সহযোগিতামূলক সম্পর্কের কোনো গ্যারান্টি নেই। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের বিজয়ী প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতা গ্রহণের মধ্যদিয়ে ইউরোপের সঙ্গে আমেরিকার সহযোগিতার বিষয়ে এক ধরনের অনিশ্চয়তা দেখা দিতে যাচ্ছে তখন মার্কেল এ মন্তব্য করলেন। ব্রাসেলসে সম্মানসূচক ডিগ্রি গ্রহণের এক অনুষ্ঠানে গতকাল (বৃহস্পতিবার) জার্মান চ্যান্সেলর বলেন, “আমাদের কিছু প্রথাগত অংশীদারের মনোভাব, আমি এখানে যা ভাবছি এবং ট্রান্স-আটলান্টিক সম্পর্ক -এসব কিছু মিলিয়ে আমেরিকার সঙ্গে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের বিষয়ে ইউরোপের কাছে চিরস্থায়ী কোনো গ্যারান্টি নেই।”
ব্যবসায়ী থেকে প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়া ট্রাম্প এরইমধ্যে আন্তর্জাতিক অনেক ইস্যুতে মার্কিন নীতির বাইরে গিয়ে আবেগতাড়িত কথাবার্তা বলেছেন যা নিয়ে আমেরিকার বহু মিত্রদেশ উদ্বেগে পড়েছে। তিনি আমেরিকার অনুসৃত বহু নীতি বদলে দেবেন বলেও ঘোষণা দিয়েছেন। এর মধ্যে ন্যাটো জোটের মাধ্যমে ইউরোপকে নিরাপত্তা দেয়া নিয়ে ট্রাম্প যে প্রশ্ন তুলেছেন তাতে ইউরোপীয় ইউনিয়নভুক্ত দেশগুলো বিশেষভাবে উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে। ন্যাটো জোটের বেশিরভাগ সদস্য হচ্ছে ইউরোপের দেশ এবং এসব দেশের নিরাপত্তার বিষয়টি মূলত মার্কিন সামরিক সাহায্য ও সহযোগিতার মাধ্যমে নিশ্চিত করা হয়।
অ্যাঙ্গেলা মার্কেলের গতকালের বক্তব্যকে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ অস্থিতিশীল ও উদ্বেগজনক অবস্থায়ও তিনি সাধারণত প্রান্তিক কথা না বলে মধ্যমপন্থা অবলম্বন করেন। সেখানে মার্কেল যখন আমেরিকার সঙ্গে সহযোগিতার বিষয়ে অনেকটা নেতিবাচক কথা বলছেন তখন মনে করা হচ্ছে- আমেরিকার ওপর ইউরোপের নির্ভরতার অবসান ঘটারই ইঙ্গিত দিচ্ছেন তিনি। মার্কেল খানিকটা পরিষ্কার করেই বলিছেন, “আমি বিশ্বাস করি ইউরোপ এবং ইউরোপীয় ইউনিয়নকে অবশ্যই ভবিষ্যতে বিশ্ব প্রেক্ষাপটে দায়িত্ব নেয়া শিখতে হবে।” এ সময় তিনি হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেন, কয়েক দশকের মধ্যে ইউরোপ এই প্রথম বর্তমানে সবচেয়ে বড় ঝুঁকি মোকাবেলা করছে যার মধ্যে রয়েছে উদ্বাস্তু সংকট, সন্ত্রাসীদের হুমকি ও ইউক্রেন সংঘাত। এ বিষয়ে ইউরোপের নেতাদের একমত হওয়া জরুরি বলেও তিনি মত ব্যক্ত করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ