সোমবার ০৩ আগস্ট ২০২০
Online Edition

রাশিয়াকে হুমকি হিসেবেই দেখছেন ট্রাম্প মনোনীত শীর্ষ কর্মকর্তারা

১৩ জানুয়ারি, বিবিসি, ওয়াশিংটন পোস্ট : রাশিয়াকে হুমকি হিসাবেই দেখছেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মনোনীত প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল জেমস মাটিস এবং মনোনীত গোয়েন্দা প্রধান মাইক পম্পিও।
রাশিয়া নিয়ে ট্রাম্পকে সতর্ক করে দিয়ে জেনারেল জেমস মাটিস বলেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর এ সময়ই নেটো জোট সবচেয়ে বড় আক্রমণের মুখে আছে। সিনেট আর্মড সার্ভিসেস কমিটিতে তিনি বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন নেটো দেশগুলোতে বিভক্তি সৃষ্টির চেষ্টা করছেন।
মস্কোর সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলার ট্রাম্পের ইচ্ছাকে সমর্থন জানানোর পরও মাটিস বলেন, “অন্তত যে সমস্ত ক্ষেত্রে দু’দেশ সহযোগিতার হাত বাড়াতে পারে না, সেসব ক্ষেত্রে রাশিয়ার আচরণ মোকাবেলা করে চলার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে প্রস্তুত থাকতে হবে।” তিনি বলেন, “আমি মনে করি প্রেসিডেন্ট পুতিনের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা করে চলার ক্ষেত্রে আমাদের বাস্তবতাকে স্বীকার করে নেওয়াটা এ মুহূর্তে খুবই দরকার।” “তিনি (পুতিন) যে নেটোকে ভেঙে ফেলতে চাইছেন এটি আমরা স্বীকার করে নিই এবং আমাদেরকে সুরক্ষিত রাখার পদক্ষেপ নেই। যেখানে আমাদেরকে এটি নিতেই হবে।”
“আমি মনে করি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর থেকে নেটো রাশিয়াসহ সন্ত্রাসী বিভিন্ন গোষ্ঠী এমনকি দক্ষিণ চীন সাগরে চীন যা করছে সেদিক থেকেও সবচেয়ে বড় আক্রমণের মুখে আছে।”
ওদিকে,  গোয়েন্দা সংস্থা সিআইএ প্রধান হিসাবে ট্রাম্পের মনোনীত মাইক পম্পিও বলেন, মস্কো ইউরোপে একটি হুমকি। ইউক্রেইনে রাশিয়া আগ্রাসী আচরণ করছে। রাশিয়ার সমালোচনা করে তিনি বলেন,  রাশিয়া আগ্রাসন চালাচ্ছে, ইউক্রেইন দখল করে নিচ্ছে, ইউরোপে হুমকি হয়ে উঠছে এবং ইসলামিক স্টেট (আইএস) জঙ্গি গোষ্ঠী নির্মূলে প্রায় কিছুই করছে না। নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মস্কোর সঙ্গে ঊষ্ন সম্পর্ক গড়ার আহ্বান জানানোর পরপরই তার মনোনীত শীর্ষ দুই কর্মকর্তা রাশিয়া কে নিয়ে এমন কড়া কথা বললেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ