মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

তাড়াশে প্রচন্ড শীতে জনজীবন থমকে দাঁড়িয়েছে

তাড়াশ সংবাদদাতা : তাড়াশে সর্বত্র শীত জেঁকে বসেছে। হঠাৎ করে ভারতের উওর হিমালয়ের পর্বত থেকে ধেয়ে আসা হিম বাতাশের প্রচ- শীতে উপজেলার  জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। মাঠে মাঠে ইরি বোরো ধান লাগানো শ্রমিকেরা থমকে দাঁড়িয়েছে। এবছর তেমন শীত ছিলনা। অগ্রাহায়ণের মাঝামাঝি সময় এসেও আবহাওয়া বেশ ভালছিল। কয়েকদিন আগেও গ্রামের লোকেরা বলাবলি করছিল এবারে শীতের গরম কাপড় বের করতে হবেনা। শীতের মওসুমে এসে মনে হচ্ছে শীত তেমন পড়বেনা অনেকের মুখে এসব কথা শুনা যাচ্ছিল। হঠাৎ উওরের হিমেল হাওয়ায় আবহাওয়া সম্পূর্ণ পাল্টে গিয়ে শুরু হয়েছে তাড়াশের সর্বত্র হাড় কাপানো শীত। গত সপ্তাহ থেকে শুরু হয়েছে প্রচ- বেগে বাতাস আর ঘনকুয়াশা। তীব্র শীত আর ঘন কুয়াশায় জনজীবন স্থবির হয়ে পড়েছে। মানুষ সকাল ১০টার আগে কেউ ঘর থেকে বের হতে পারছেনা। কৃষক ও শ্রমিকদের চলমান গতিতে মাঠের ধান কাটা ও ইরি বোরো লাগানো থমকে দাঁড়িয়েছে। আবার বৃদ্ধদের বিভিন্ন জায়গায় রাস্তার ধারে, গ্রামের খলিয়ানে যেখানে সেখানে আগুন জালিয়ে শীত নিবারণ করতে দেখা যাচ্ছে। প্রচ- শীতে উপজেলার ছিন্নমূল মানুষেরা চরমবিপাকে পড়েছে। শীতের কাপড় চোপড় সংগ্রহের আগেই হঠাৎ করে শীত জেঁকে বসেছে। প্রচ- শীত আর ঘনকুয়াশায় শিশুসহ সব বয়সের মানুষ ডায়রিয়া, আমাশা, নিউমোনিয়াসহ বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হচ্ছে। দিন দিন শীতের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় সাধারণ মানুষের জীবন যাত্রা স্থবির হয়ে পড়েছে। তাড়াশ উপজেলা জামায়াতের আমীর খম সাকলাইন উপজেলার অসহায় শীতার্থ ছিন্নমূল মানুষের অসহ্য শীত নিবারণের জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও বিত্তবানদের প্রতি শীত বস্ত্র বিতরণের জন্য আকুল আবেদন জানিয়েছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ