মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

চেয়ারম্যান পদে বিরোধীদলীয় প্রার্থী নেই

খুলনা অফিস : আজ বুধবার খুলনা জেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। খুলনায় চেয়ারম্যান পদে ৩ এবং ১৫টি সাধারণ সদস্য পদে ৫০ এবং ৫টি সংরক্ষিত আসনে ১৪ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত টানা ভোট গ্রহণ চলবে। খুলনায় চেয়ারম্যান পদে প্রার্থীরা হলেন, জেলা আ’লীগের সভাপতি প্রবীণ রাজনীতিবিদ শেখ হারুনুর রশীদ, রূপসা উপজেলা সাবেক চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা শেখ আলী আকবর ও অপর আওয়ামী লীগ কর্মী অজয় সরকার।

এ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিরোধী দল বিএনপি, জাতীয় পার্টি, জামায়াত তথা বাম দলগুলো প্রার্থী না দেয়ায় একক নির্বাচন হচ্ছে বলে বিশ্লেষকরা বলছেন। তারা মনে করেন বিরোধী দল না থাকায় জেলা আ’লীগের সভাপতি প্রবীণ রাজনীতিবিদ শেখ হারুনুর রশীদই বিপুল ভোটে জয়লাভ করবেন। নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, জেলার ৬৮ টি ইউনিয়ন, খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) এবং দুটি পৌরসভায় নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির সংখ্যা ৯৭০ জন। অর্থাৎ খুলনা জেলায় ভোটারও ৯৭০। মোট জেলাকে ১৫টি ওয়ার্ডে ভাগ করা হয়েছে। প্রত্যেকটি ওয়ার্ডে একটি করে কেন্দ্র বসানো হয়েছে। 

জেলার জন্য নির্ধারিত কেন্দ্রগুলো হচ্ছে- চালনা বাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। এখানে ভোট দিতে পারবেন চালনা পৌরসভা, সুতারখালী, কামারখোলা, তিলডাঙ্গা ও পানখালী ইউনিয়নের ভোটারগণ। বাজুয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেবেন বাজুয়া, দাকোপ, কৈলাশগঞ্জ, লাউডোব, বানিশান্তা ইউনিয়নের ভোটররা। কয়রা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভোট দেবেন কয়রা, মহেশ্বরীপুর, মহারাজপুর, উত্তর বেদকাশী, দক্ষিণ বেদকাশী ইউনিয়নের ভোটাররা। বটিয়াঘাটার কাতিয়ানাংলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোট দেবেন আমিরপুর, বালিয়াডাঙ্গা, ভান্ডারকোট, গঙ্গারামপুর ও সুরখালী ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিরা। প্রগতি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভোট দেবেন জলমা, বটিয়াঘাটা ইউনিয়ন, ডুমুরিয়ার ভান্ডারপাড়া, গুটুদিয়া ও আড়ংঘাটা ইউনিয়নের ভোটারগণ। 

খর্ণিয়া ইউনিয়ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ভোট দেবেন ডুমুরিয়ার আটলিয়া, মাগুরঘোনা, খর্ণিয়া, শোভনা ও রুদাঘরা ইউনিয়নের ভোটার। ডুমুরিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন কেন্দ্রে ভোট দেবে ধামালিয়া, রঘুনাথপুর, ডুমুরিয়া, সাহস, রংপুর ইউনিয়নের ভোটাররা। ফুলতলা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভোট দেবেন ফুলতলা, আটরা, গিলাতলা, জামিরা, দামোদর, দিঘলিয়ার যোগীপোল ইউনিয়নসমূহ। দিঘলিয়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভোট দেবে বারাকপুর, দিঘলিয়া, গাজীরহাট, সেনহাটি এবং তেরখাদার মধুপুর ইউনিয়নের ভোটারগণ। পাইকগাছার এইচএফ মৌখালী ইউনাইটেড একাডেমী মিলনায়তনে ভোট দেবেন আমাদী, বাগালী, চাঁদখালী, গড়ইখালী, লস্কর ইউনিয়নের ভোটাররগণ। পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন কেন্দ্রে ভোট দেবেন গদাইপুর, রাড়–লী, কপিলমুনী ও হরিঢালী ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধি ভোটারগণ। লতা ইউনিয়ন পরিষদ কাটামারী পাইকগাছা কেন্দ্রে ভোট দেবেন সোলাদানা, দেরুটি, লতা, মাগুরখালী, শরাফপুর ইউনিয়নের ভোটাররা। তেরখাদার ইখড়ি কাটেঙ্গা ফজলুল হক কেন্দ্রে ভোট দেবেন ছাগলাদহ, তেরখাদা, বারাসাত, আজগড়া ইউনিয়নের ভোটারগণ। রূপসা উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে ভোট দেবেন শ্রীফলতলা, আইচগাতী, টিএস বাহিরদিয়া, নৈহাটী, ঘাটভোগ ইউনিয়নের ভোটারগণ। খুলনা জিলা স্কুল কেন্দ্রে ভোট দেবেন কেসিসি ও সকল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যানগণ।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও সহকারি রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান জানান, জেলা পরিষদের প্রতিটি ভোটকেন্দ্র পাহারায় থাকবে ২০ জন করে সদস্য। পুলিশ, আর্মস পুলিশ ব্যাটালিয়ান, ব্যাটালিয়ান আনসার ও আনসার ভিডিপির সদস্যরা। এর মধ্যে একজন অস্ত্রসহ, পুলিশ (কনস্টেবল) অস্ত্রসহ, আনসার একজন অস্ত্রসহ, আনসার একজন অস্ত্রসহ এবং অঙ্গীভূত আনসার ১৫ জন লাঠিসহ থাকবেন। যার মধ্যে পুরুষ আটজন ও মহিলা সাতজন। কেন্দ্রের বাইরে স্ট্রাইকিং ও পেট্রালিয়ং ফোর্স হিসেবে থাকবে র‌্যাব। এছাড়াও থাকবে নির্বাচন কমিশনের ম্যাজিস্ট্রেট।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ