মঙ্গলবার ০৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

ফেনীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় স্কুল ছাত্রীসহ ৪ জন নিহত

ফেনী সংবাদদাতা : ফেনীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় সোমবার স্কুল ছাত্রী ও ব্যবসায়ীসহ ৪ জন নিহত হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, গতকাল সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শহরের তাকিয়া রোডের হক অনুবাদ সেন্টারে মালিক একেএম ছানা উল্লাহ (৫২) শহরে আসছিলেন। পথিমধ্যে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মোহাম্মদ আলী বাজারে আসলে গাড়ীর ধাক্কায় তিনি পড়ে গিয়ে ঘটনাস্থলে মারা যান। নিহত ছানা উল্লাহ চৌদ্দগ্রাম থানার কাইচ্ছুড়ি গ্রামের মৃত একেএম শামছুল হকের ছেলে।

একইদিন দুপুর ২টার দিকে মহাসড়কের লালপোলে স্টার লাইন ফিলিং স্টেশন সংলগ্ন স্থানে চট্টগ্রাম থেকে লালপোলগামী তেলের ট্রাক বিপরীত দিক থেকে আসার একটি সিএনজি অটোরিক্সাকে চাপা দেয়। ঘটনাস্থলে সিএনজি অটোরিক্সা যাত্রী ওমর ফারুক নিহত হয়। তিনি ফেনী সদর উপজেলার বালিগাঁও ইউনিয়নের বেতাগাঁও গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে।

অন্যদিকে দুপুরে সুমাইয়া আক্তার (১১) নামের ৪র্থ শ্রেনীর এক ছাত্রী মায়ের সাথে টমটম যোগে ফুলগাজীর মুন্সিরহাট বাজার থেকে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। ফেনী-পরশুরাম সড়কের ফতেহপুর রাস্তার মাথা নামক স্থানে পৌছলে পেছন থেকে আসা একটি দ্রুতগামী সিএনজি অটোরিক্সা সুমাইয়াকে চাপা দেয়। রাস্তার পাশে ছিটকে পড়লে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। পরে অবস্থা আশংকাজনক দেখে কর্তব্যরত ডাক্তার চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করলে নেয়ার পথে সুমাইয়া মারা যায়। সে মুন্সিরহাট ইউনিয়নের ফতেহপুর গ্রামের বালন মিয়ার মেয়ে।

অপরদিকে ছাগলনাইয়া উপজেলার ঢাকা-চট্টগ্রাম পুরাতন মহাসড়কের দারোগারহাট রাস্তার মাথা নামক স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় আবুল খায়ের মিন্টু নামের এক ব্যবসায়ী নিহত ও অপর তিনজন আহত হয়। আহতদের মধ্যে ব্যবসায়ী মিন্টু মিয়াকে (৫২) চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে মারা যান। নিহত মিন্টু মিয়া উপজেলার দক্ষিণ মন্দিয়া গ্রামের বাসিন্দা ও দারোগারহাটের ব্যবসায়ী।

ফেনীতে সাড়ে ৩ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস করেছে বিজিবি : ফেনীতে বিভিন্ন সময়ে উদ্ধারকৃত প্রায় সাড়ে ৩ কোটি টাকা মূল্যের মাদকদ্রব্য ধ্বংস করেছে বিজিবি। সোমবার জায়লস্করস্থ ৪ বিজিবির সদর দপ্তরে মাদকদ্রব্য ধ্বংসকালে প্রধান অতিথি ছিলেন বিজিবির সেক্টর কমান্ডার কর্ণেল গাজী মো: আহসানুজ্জামান জি। উদ্ধারকৃত মাদকদ্রব্যের মধ্যে ৩ কোটি ২৫ লাখ ৭৪ হাজার টাকা মূল্যের ২১ হাজার ৭শ ১৬ বোতল ভারতীয় মদ, ১১ লাখ ৯৯ হাজার ২শ টাকা মূল্যের ২ হাজার ৯শ ৯৮ বোতল ভারতীয় ফেন্সিডিল, ৫৫ হাজার ২শ ৫০ টাকা মূল্যের ২শ ২১ বোতল ভারতীয় বিয়ার, ৪১ হাজার ৬শ টাকা মূল্যের ১শ ৪ বোতল ভারতীয় কোরেক্স ও ১ কোটি ৪৮ লাখ ৭শ ৫০ টাকা মূল্যের ৪২ হাজার ৫শ কেজি ভারতীয় গাঁজা রয়েছে। ধ্বংসকালে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ৪ বিজিবির অধিনায়ক লে: কর্ণেল মো: কামরুল ইসলাম, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট রাজেশ চৌধুরী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক কুল প্রদীপ চাকমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সার্কেল) ঐক্য সিং চাকমা, ফেনী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুর রহমান বি.কম, ৪ বিজিবির অপারেশন অফিসার মেজর এম আশরাফ আলী প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ