বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০
Online Edition

বন্ধু বন্ধুকে নিরাপত্তা পরিষদে নিয়ে যেতে পারে না -নেতানিয়াহু

২৬ ডিসেম্বর, দি হিল : জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে ইসরাইল বিরোধী প্রস্তাব পাস হয় স্থানীয় সময় ২৫ ডিসেম্বর। অধিকৃত ফিলিস্তিনী ভূখ-ে অবৈধ ইহুদি বসতি নির্মাণের নিন্দা এবং বসতি নির্মাণ তৎপরতাকে আন্তর্জাতিক আইনের চরম লঙ্ঘন বলে উল্লেখ করা হয়েছে প্রস্তাবটিতে।
তবে এমন সিদ্ধান্তে মোটেও খুশি হতে পারেন নি ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনজামিন নেতানিয়াহু।
এ জন্য সরাসরি বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা প্রশাসনকেই দায়ী করেছেন নেতানিয়াহু। কারণ ভেটো ভোট দেয়ার ক্ষমতা থাকলে তা প্রয়োগ করে নি যুক্তরাষ্ট্র।
নেতানিয়াহু বলেন, ‘বসতি স্থাপন নিয়ে কয়েক বছর ধরেই ঐকমত্য নেই যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরাইলের। তবে জাতিসংঘের নিরাপত্তা কাউন্সিল যে এ বিভেদ নিরসনের স্থান নয় সে বিষয়ে ঐকমত্য ছিলাম’। জেরুজালেমে মন্ত্রিসভার সাপ্তাহিক বৈঠকে নেতানিয়াহু আরো বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের সেক্রেটারি অব স্টেট জন কেরিকে আমি বলেছি বন্ধু বন্ধুকে নিরাপত্তা কাউন্সিলে নিয়ে যেতে পারে না’।
তিনি বলেন, জাতিসংঘে এর মীমাংসা করা কঠিন হবে সেটা আমরা জানতাম। নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনকে ইঙ্গিত করে নেতানিয়াহু বলেন, ‘আমার যুক্তরাষ্ট্রের বন্ধুরা’ বলেছে এটি একটি ধ্বংসাত্মক ও বেপোরোয়া প্রস্তাব’। আমি আমার সেই বন্ধুদের সঙ্গে এ বিষয়টি নিয়ে কাজ করবো। এই নতুন প্রশাসন আগামী মাসেই দায়িত্ব বুঝে নেবে’।
এদিকে নিরাপত্তা পরিষদে ভেটো না দেয়ায় রিপাবলিকান ও কতিপয় ডেমোক্রেট নেতাও নেতিবাচক প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন। এদিকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প বলেছেন, ‘ তিনি দায়িত্ব নিলে জাতিসংঘের জন্য বিষয়টি অন্য রকম হবে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ