বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০
Online Edition

আবারও পুতিন-এরদোগান ফোনালাপ

২৬ ডিসেম্বর, রয়টার্স পার্স টুডে, আনাদোলু: আবারও সিরিয়া সমস্যা নিয়ে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও তুর্কি প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান টেলিফোনে আলোচনা করেছেন।
গত রোববার এই দুইনেতা ফোনালাপ করেন বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে ক্রেমলিন।
রাশিয়া সফররত কিরগিজ প্রেসিডেন্ট নূরসুলতান নাজারবায়েভও এ সময় ফোনালাপে অংশ নেন বলে বিবৃতিতে জানানো হয়েছে।
ফোনালাপে তুর্কি প্রেসিডেন্ট কৃষ্ণসাগরে রুশ সামরিক টিইউ-১৫৪ বিধ্বস্ত হয়ে ৯২ আরোহীর সবার মৃত্যুর ঘটনায় শোক প্রকাশ করেন।
সপ্তাখানেক আগেও রুশ ও তুর্কি প্রেসিডেন্টের মধ্যে সিরিয়ার আলেপ্পোর পরিস্থিতি নিয়ে ফোনালাপ হয়েছিল।
তবে সেবার এরদোগানের কার্যালয়ের সূত্রে বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়।
শহরটির বাসিন্দাদের সরিয়ে আনার ক্ষেত্রে যেসব সমস্যা দেখা দিচ্ছে তা দ্রুত কাটিয়ে ওঠার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়ে ওই ফোনালাপ হয়।
ফোনালাপে এরদোয়ান ও পুতিন, মানবিক সহায়তার উদ্যোগ বাড়ানোর পাশাপাশি সিরিয়া সমস্যার রাজনৈতিক সমাধান অর্জনের ব্যাপারে জোর দেন।
প্রসঙ্গত, আলেপ্পো সিরিয়ার বিদ্রোহীদের সর্বশেষ ঘাঁটি বলে বিবেচনা করা হচ্ছে।
সম্প্রতি সিরিয়ার সরকারি বাহিনী পূর্ব আলেপ্পোর বিদ্রোহী-নিয়ন্ত্রিত অধিকাংশ এলাকা পুনরুদ্ধার করেছে।
তবে শহরটির ওই অংশের বিচ্ছিন্ন কয়েকটি অংশ এখনও বিদ্রোহীদের নিয়ন্ত্রণে রয়ে গেছে। মূলত বিদ্রোহীরা সেখানে আটকা পড়ে গেছে।
সরকারি পক্ষের ব্যাপক বোমাবর্ষণে এসব এলাকার বেসামরিক মানুষেরা আশ্রয় হারিয়ে খোলা আকাশের নিচে রয়েছেন।
খাবার ও চিকিৎসা বঞ্চিত এসব মানুষ ও অস্ত্র ত্যাগের মাধ্যমে বিদ্রোহী যোদ্ধারা ওই এলাকা ত্যাগ করতে পারবে বলে সরকার পক্ষ ও বিদ্রোহীদের মধ্যে সমঝোতা হয়।
আইএসের বিরুদ্ধে জয়ী হতে ফের ট্যাংক পাঠাচ্ছে তুরস্ক : সিরিয়া সীমান্তে আরো ট্যাংক ও গোলন্দাজ ইউনিট পাঠিয়েছে তুরস্ক। সিরিয়ার আল-বাব শহরে তুর্কি সেনারা যখন আইএসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হতে হিমশিম খাচ্ছে তখন এসব সমরাস্ত্র পাঠানো হলো।
তুরস্কের সরকারি আনাদোলু বার্তা সংস্থা জানিয়েছে, দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তে বেশ কয়েকটি ট্যাংক, সাঁজোয়া যান ও কামানসহ অন্তত ১০টি গোলন্দাজ ইউনিট মোতায়েন করা হয়েছে। তুরস্কের ওগুয়েলি ও কারকামিস এলাকায় এসব সমরাস্ত্র পাঠানো হয়েছে। সিরিয়ার জারাবলুস শহরে যাওয়ার মহাসড়কের পাশে ওই দু’টি এলাকা অবস্থিত।
গত বুধবার সিরিয়ার আল-বাব দখলের লড়াইয়ে আইএসের হাতে ১৬ তুর্কি সেনা নিহত হয়। সিরিয়ার অনুমতি ছাড়া গত আগস্টে দেশটিতে তুরস্ক সেনা পাঠানোর পর এর আগে একক কোনো সংঘর্ষে এত বেশি তুর্কি সেনা নিহত হয়নি।
এদিকে তুরস্কের সামরিক সূত্র দাবি করেছে, সংঘর্ষকবলিত শহরটি দখলের কাছাকাছি অবস্থানে রয়েছে তারা। রোববার সেখানে তুমুল সংঘর্ষে ১২ আইএস  নিহত হয়েছে বলেও এটি দাবি করেছে। অবশ্য স্বতন্ত্র সূত্র থেকে এই দাবির সত্যতা যাচাই করা যায়নি।
তুরস্ক যখন সিরিয়ার আল-বাব শহরে আইএসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের দাবি করছে তখন খোদ আঙ্কারার বিরুদ্ধে আইএসকে পৃষ্ঠপোষকতা দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। আল-বাব শহরে তুর্কি সেনাদের হামলায় উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বেসামরিক মানুষ নিহত হয়েছে। ব্রিটেন ভিত্তিক একটি পর্যবেক্ষক গ্রুপ জানিয়েছে, আল-বাবে একদিনের তুর্কি গোলার আঘাতে ২১ শিশুসহ প্রায় ৯০ বেসামরিক ব্যক্তি প্রাণ হারিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ