শনিবার ২৩ জানুয়ারি ২০২১
Online Edition

বিটিআরসি সাইবার ক্রাইম ঠেকাতে তৎপর নয় -সুলতানা কামাল

বাপার সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক আবদুল করীম কিমকে নিষ্ক্রিয় ও হত্যা করার ভয়াবহ ষড়যন্ত্রের প্রতিবাদে গতকাল শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়তনে বাপা আয়োজিত সাংবাদিক সম্মেলনে বক্তব্য পেশ করেন সুলতানা কামাল -সংগ্রাম

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা)’র সহ সভাপতি এডভোকেট সুলতানা কামাল, বলেছেন, দেশের প্রতিবাদি কন্ঠস্বরকে স্তব্দ করে দিতে সাইবার ক্রাইমকে বেছে নেয়া হয়েছে। এ সাইবার ক্রাইম সমাজকে অস্থির করে দিচ্ছে। কিন্তু এ ব্যাপারে টেলিকমিনিক্যাশন অথারিটি কার্যকর পদক্ষেপ নিচ্ছে না। বিটিআরসি সাইবার ক্রাইম ঠেকাতে তৎপর নয়।
বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন (বাপা) ও ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশ এর যৌথ উদ্যোগে গতকাল ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি সাগর-রুনি মিলনায়তনে সাংবাদিক সম্মেলনে এসব অভিযোগ করেন সুলতানা কামাল। সম্মেলনে আরো উপস্থিত ছিলেন বাপা’র সহ সভাপতি রাশেদা কে চৌধুরী, নদী কমিশনের সদস্য শারমিন মুর্শীদ, সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র আইনজীবি তবারক হোসেন এবং বাপা’র সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোঃ আব্দুল মতিন। ওয়াটারকিপার্স বাংলাদেশের সমন্বয়ক  শরীফ জামিলএবিষয়ে মূলবক্তব্য তুলে ধরেন। এতে ভূক্তভোগী আব্দুল করিম কিম, বাপা’র সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদকসহ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখবেন।
সম্মেলনে অভিযোগ করা হয় যে, বাপা সিলেট শাখার সাধারণ সম্পাদক আবদুল করিম কিমকে গত ১৪ ডিসেম্বর মধ্যরাতে কয়েক গাড়ি সশ্রস্ত্র পুলিশ জিজ্ঞাসা করার নামে সিলেট কোতোয়ালী থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। তার বিরুদ্ধে ফেইসবুকে ধর্ম অবমাননার একটি মন্তব্য ও প্রাথমিক তদন্ত শুরু করে। কিন্তু পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদেই বুঝতে পারে আবদুল করিম কিম একজন ধর্মপ্রাণ মুসলমান। এবং তাকে ফাসানোর জন্য ফেইসবুকে ভুয়া আইডি ব্যবহার করে তারই নামে সেখানে বিভিন্ন মন্তব্য প্রকাশ করা হয়। আধুনকি প্রযুক্তি ও তার নাম ও ছবি ব্যবহার করে একাজটি করা হয়েছে বলে পুলিশ তাৎক্ষনিকভাবে বুঝতে পারে। এবং তাকে ছেড়ে দেয়। কিন্তু ফেইসবুকে এ ধরনের মিথ্যা প্রচারণার কারণে আবদুল করিম কিমের জীবন হুমকির মুখে পড়ে যায়, একের পর এক তাকে হত্যার হুমকি দেয়া হচ্ছে।
সুলতানা কামাল অভিযোগ করেছেন যে, আবদুল করিম কিমকে যত ক্ষিপ্রতার সাথে থানায় তুলে নিয়ে যাওয়া হয় তত তাড়াতাড়ি ঐ অপকর্মের সাথে প্রকৃত জড়িতদের চিহ্নিতকরণ ও শাস্তি প্রদানে প্রশাসনিক ব্যস্ততা নেই। নেই কোন আগ্রহ। তিনি যথাযথ কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে আবদুল করিম এর নামে পরিচালিত এ অপরাধমুলক ফেইসবুক অপপ্রচার তথ্য সাইবার অপরাধ অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানান। অবিলম্বে ও অগ্রাধিাকারের ভিত্তিতে এ ঘটনার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করার দাবি করেন এবং তাদের নাম পরিচয় প্রকাশ করতে বলেন। তিনি বলেন, সাইবার ক্রাইম দমনে আরও ত্বরিত ও সংবেদনশীল সহকারী ভূমিকা নিশ্চিত করার পরামর্শ দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ