শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

মিডিয়ার সাথে কথা বলার পর রোহিঙ্গার মুন্ডুবিহীন লাশ

সংগ্রাম ডেস্ক : নাফনদীতে মিললো মুন্ডুবিহীন মুসলিম রোহিঙ্গা ব্যক্তির  লাশ। শুক্রবার নদী থেকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয় নাফ ৪১ বছর বয়সী ওই ব্যক্তির লাশের মাথার অংশটুকু ছিলো না। বিবিসি বাংলা।
জানা যায়, এর আগে বুধবার মিয়ানমারের সাংবাদিকদের একটি দল রাখাইন পরিদর্শনের নজিরবিহীন সুযোগ পায়।
সে সময় সাংবাদিক দলটির কাছে রাখাইনের ভয়াবহ পরিস্থিতি ও সেনাবাহিনীর দমন পীড়নের বিষয়ে কথা বলেছিলেন নিহত ওই ব্যক্তি। এরপরই ওই ব্যক্তির লাশ পাওয়া যায়।
এরই মধ্যে রাখাইনে কমপক্ষে ৮৬ রোহিঙ্গা নিহত হয়েছে এবং পালাতে বাধ্য হয়েছে অন্তত ২৭ হাজার।
মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশ মুসলিম অধ্যুষিত এবং তারা জাতিগত নিপীড়নের শিকার হচ্ছে বলেও জানিয়েছে জাতিসংঘ।
হাজার হাজার রোহিঙ্গা জীবন বাঁচাতে ইতোমধ্যেই বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে। আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা এ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর বিরুদ্ধে খুন, ধর্ষণ ও নির্যাতনের অভিযোগ এনেছে। তবে সেনাবাহিনীর তরফ থেকে তা প্রত্যাখ্যান করা হয়েছে।
বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে
৩৬ রোহিঙ্গাকে বিজিবির ফেরত
কক্সবাজার সংবাদদাতা: বাংলাদেশে অনুপ্রবেশের চেষ্টাকালে ৩৬ রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠিয়েছে বিজিবি। জেলার সীমান্ত শহর টেকনাফের বিভিন্ন সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে এ অনুপ্রবেশের চেষ্টা চালায় মিয়ানমারের নির্যাতিত রোহিঙ্গা মুসলিমরা।
সূত্রে দাবি, নাফনদী পার হয়ে কক্সবাজারের টেকনাফ দিয়ে অনুপ্রবেশকালে রোহিঙ্গা বোঝাই দুটি নৌকাকে প্রতিহত করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এসময় বিজিবি সদস্যরা নৌকাদ্বয়ে থাকা ৩৬রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে ফেরত যেতে বাধ্য করে। শুক্রবার ভোররাত থেকে সকাল সাতটা পর্যন্ত তারা টেকনাফ উপজেলার হ্নীলা সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে অনুপ্রবেশের চেষ্টা করে।
টেকনাফ-২ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর আবু রাসেল ছিদ্দিকী  বলেন, শুক্রবার উপজেলার হ্নীলা সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে রোহিঙ্গা বোঝাই দুটি নৌকা অবৈধভাবে বাংলাদেশে ঢুকে পড়ার চেষ্টা করে। এ সময় বিজিবির সদস্যদের বাধার মুখে তারা মিয়ানমারে ফিরেযেতে বাধ্য হয়। তিনি জানান, নৌকা দুটিতে ৩৬ জন রোহিঙ্গা শিশু, নারী ও পুরুষ ছিল। এতে শিশুর সংখ্যা ছিল বেশি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ