বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

দিনাজপুরে খ্রিস্টান মিশনারীর নৈশ্য প্রহরীকে তীর দিয়ে হত্যা

দিনাজপুর অফিস : দিনাজপুরে খ্রিষ্টান মিশনারীর সুকু সরেন (৪৫) নামে এক নৈশ্য প্রহরীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। এর আগে বুধবার গভীর রাতে সদরের কসবা মিশনের পাশের্^ দুর্বৃত্তরা নৈশ্য প্রহরী সুকু সরেনের তীর কেড়ে নিয়ে ওই তীর দিয়েই তাকে খুঁচিয়ে গুরুতর আহত করে। সুকু সরেন সদর উপজেলার আওলিয়াপুর গ্রামের লক্ষ্মণ সরেণের পুত্র।
এলাকাবাসী জানায়, গত বুধবার রাত ১টায় এক দল সংঘবদ্ধ চোর কসবা মিশনে চুরি করতে যায়। চোরদের প্রতিহত করতে সুকু সরেন নিজ তীর-ধনুক দিয়ে প্রতিরোধের চেষ্টা করে। কিন্তু চোররা সুকু সরেনের তীর কেড়ে নিয়ে তাকে ওই তীর দিয়েই খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে গুরুত্বর আহত করে প্রাচীর টপকে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে মিশনের লোকজন দ্রুত ছুটে এসে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধারের পর দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল বৃহস্পতিবার ভোরে সুকু সরেনের মৃত্যু হয়।
এদিকে তার মৃত্যুতে তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনাস্থলে ছুটে যান দিনাজপুর সদর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ ইকবালুর রহিম। তিনি শোক-সন্তপ্ত পরিবার-পরিজনকে সান্তনা দেন এবং সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে হত্যাকারীদের গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি নিশ্চিত করা হবে বলে পরিবারকে জানান। এ সময় তিনি হত্যাকারীদের খুঁজে বের করতে প্রশাসনের প্রতি তাৎক্ষনিক নির্দেশ প্রদান করেন। হুইপ ইকবালুর রহিম নিহত সুকু সরেনের সৎকারের জন্য ব্যক্তিগত তহবিল থেকে নগদ ২০ হাজার টাকা প্রদান করেন। তিনি বলেন, এটি একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা। এ ঘটনা ভিন্নখাতে প্রবাহিতের সুযোগ নেই। এছাড়া হুইপ ইকবালুর রহিম আগামী বড়দিন সুষ্ঠুভাবে পালনের জন্য খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের নেতৃবৃন্দের প্রতি আহবান জানান এবং আইন-শৃংখলা পরিস্থিতি নিরাপদ ও নির্বিঘœ রাখতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাহফুজ আশরাফ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ক্রাইম) মিজানুর রহমান ও কোতয়ালী থানার ওসি রেদওয়ানুর রহিম প্রমুখ। দিনাজপুর কোতয়ালি থানার ওসি রেদওয়ানুর রহিম জানান, ঘাতকদের গ্রেফতারে পুলিশ ইতোমধ্যে অভিযান শুরু করেছে।
১৯ মাদক ব্যবসায়ী আটক
দিনাজপুর জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ১৯ মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে পুলিশ। বুধবার দিবাগত রাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করা হয়। এসময় আটক মাদক ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে ৫৪০ পিস ইয়াবা, ৮৭ বোতল ফেনসিডিল, ৫০ পিস টিটি ইঞ্জেকশন, দুই গ্রাম হেরোইন ও ১৫০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করা হয়। দিনাজপুর পুলিশ নিয়ন্ত্রণ কক্ষ সুত্র জানায়, আটক মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে পৃথকভাবে ১৩টি মামলা দায়ের করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ