শুক্রবার ১৭ জুলাই ২০২০
Online Edition

পাঁচ বছরে ভারতে পুলিশ হেফাজতে নিহত প্রায় ৬০০

১৯ ডিসেম্বর, বিবিসি : ভারতে পুলিশের হেফাজতে ২০১০ থেকে ২০১৫ সালের মধ্যে প্রায় ৬০০ কয়েদী নিহত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ এই তথ্য জানিয়েছে। নতুন একটি প্রতিবেদনে এই তথ্য প্রকাশ করেছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার এই সংস্থাটি।
ভারতের পুলিশের হেফাজতে নিহতের ঘটনা নিয়মিতই হয়ে থাকে। পুলিশের পক্ষ থেকে শারীরিক অসুস্থতা ও দুর্ঘটনায় তারা মারা যায় বলে দাবি করা হয়। তবে পুলিশের এই দাবি প্রত্যাখ্যান করে মানবাধিকার সংস্থাটি বলেছে অধিকাংশ কয়েদী নিহত হয় পুলিশের নির্যাতনে।
গতকাল সোমবার আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ ১১৪ পৃষ্ঠার একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। প্রতিবেদনে বলা হয়, ভারতের পুলিশ আইনের প্রতি শ্রদ্ধা না রেখে আইন অবজ্ঞা করে আসামীদের উপর নির্র্যাতন চালানো হয়।  নির্যাতনের ফলে অধিকাংশ কয়েদী নিহত হয়েছে। এছাড়া যারা মৃত্যুর সঙ্গে জড়িত তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয় না।
প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৭ টি মৃত্যুর গভীরভাবে অনুসন্ধান করা হয়। ২০০৯ থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত এই ১৭টি নিহতের ঘটনা ঘটে। এছাড়া ভিকটিমদের পরিবারের সদস্য, প্রত্যক্ষদর্শী ও বিশেষজ্ঞদের সাক্ষাৎকার নিয়ে এই বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায়।
পুলিশ হেফাজতে এই ১৭টি মৃত্যুর নিয়ে তদন্ত করা হয়। তদন্তে উঠে আসে তাদের গ্রেফতারে সঠিক নিয়ম অনুসরণ করা হয়নি। সন্দেহজনকভাবে তাদের উপর নির্যাতন চালানো হয়। নির্যাতনের ফলে তারা মৃত্যুবরণ করেন।
হিউম্যান রাইটস ওয়াচের দক্ষিণ এশিয়া বিষয়ক পরিচালক মানাক্ষী গাঙ্গুলি বলেন, পুলিশ হেফাজতে মৃত্যুর সঙ্গে জড়িতদের শাস্তির বিধান করা হলে ভারতের পুলিশ সদস্যরা শিক্ষা নেবে।
তিনি আরো বলেন, আমাদের সমীক্ষায় এটাই তুলে ধরার চেষ্টা করেছি যে, পুলিশের  হেফাজতে নির্যাতন করা উদ্বেগজনক। ২০১৫ সালে ৯৭ জন পুলিশের হেফাজতে নিহত হয়। পুলিশ আসামীদের গ্রেফতারের ২৪ ঘন্টার মধ্যে ম্যাজিট্রেটের কাছে হাজির করার বিধান থাকলেও তা অনুসরণ করেনি পুলিশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ