সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

আটক ডুবোজাহাজটি ফিরিয়ে নিতে চান না ট্রাম্প

১৮ ডিসেম্বর, টাইমস অব ইন্ডিয়া : যুক্তরাষ্ট্রের জব্দ হওয়া চালকবিহীন ডুবোজাহাজটি চীনের কাছে থাকতে দেওয়া উচিত বলে মনে করেন নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। এক টুইট বার্তায় তিনি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি এই আহবান জানিয়েন। স্থানীয় সময় শনিবার বিকেলে টুইটারে এই কথা বলেন ট্রাম্প। এই বিষয়টি নিয়ে আগেও একটি টুইট করেছিলেন ট্রাম্প। সেখানে তিনি বলেন, ‘চীন আন্তর্জাতিক জলসীমায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডুবোজাহাজটি চুরি করেছে। ড্রোনটিকে চীন বেআইনিভাবে আটক করেছে বলে অভিযোগ করেন তিনি।
দক্ষিণ চীন সাগরে বৈজ্ঞানিক তথ্য সংগ্রহ করা আনমেনড আন্ডারওয়াটার ভিকল (ইউইউবি) বা ডুবোজাহাজ বৃহস্পতিবার চীনের সামরিক বাহিনী আটক করে। পেন্টাগণ ড্রোনটিকে ফেরত দেওয়ার জন্য চীনের কাছে দাবি করেন। তারা ঘটনাটিকে আন্তর্জাতিক জলসীমায় একটি ‘বেআইনি দখল’ বলে উল্লেখ করেন।
এদিকে বেইজিং জানায়, আমেরিকা বিষয়টি নিয়ে বাড়াবাড়ি করছে। জাহাজ চলাচলের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্যই তারা এই কাজটি করেছে এবং শর্তসাপেক্ষে তারা এটি ফেরত দিতেও রাজি আছে।
শনিবার ট্রাম্পের বিতর্কিত টুইটের কিছুক্ষণ আগে মার্কিন সামরিক বাহিনী ড্রোনটি ফিরিয়ে আনার জন্য চীনের সাথে মীমাংসায় পৌঁছেছেন বলে ঘোষণা দেন। তবে এই বিষয়টি পছন্দ হয়নি ট্রাম্পের। তাই ট্রাম্প টুইট বার্তায় ‘ চীনকে আমাদের বলা উচিত চুরি হওয়া ড্রোনটি আমাদের প্রয়োজন নেই। এটা তাদের কাছেই থাকতে দেওয়া উচিত।’
নির্বাচিত হওয়ার পরে বিশ্ব নেতাদের সঙ্গে টেলিফোনে কথা বলেন ট্রাম্প।  তারই অংশ হিসেবে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের সঙ্গে ফোনালাপ হয় ট্রাম্পের। এরপর চীন ও আমেরিকার মধ্যে সম্পর্কের টানাপোড়েন শুরু হয়। ড্রোন নিয়ে ট্রাম্পের এই বক্তব্য বিষয়টিকে আরও অবনতির পথে নিচ্ছে বলেই ধারণা করছেন বিশেষজ্ঞরা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ