সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

বাগমারায় রাস্তা নিয়ে বিরোধের জের জামাইকে কুপিয়ে হত্যা

বাগমারা (রাজশাহী) সংবাদদাতা : রাজশাহীর বাগমারায় খোরশেদ আলম (৪০) নামে এক ঘরজামাই পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হাঁসুয়ার কোপে নিহত হয়েছেন। সে উপজেলার চাপাকুড়ী গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে। গত রোববার রাতে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।। ঘটনার খবর পেয়ে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, কয়েক বছর পূর্বে খোরশেদ মাড়িয়া ইউনিয়নে মাড়িয়া গ্রামে বিয়ে করে ঘরজামাই যায়। কিছুদি হতে খোরশেদ আলম ও তার প্রতিবেশী মসলেম আলীর পুত্র আ. খালেকের মধ্যে বাড়ি হতে বের হবার রাস্তা নিয়ে বিরোধ চলছিল। গতকাল খোরশেদ আলমের বাড়ির রাস্তা বিকেলে বন্ধ করে দেয় প্রতিবেশী আঃ খালেক। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাক বিতন্ডা বাধে। এক পর্যায়ে আঃ খালেক ও তার স্ত্রী রুপালী বেগম মার মুখী হয়ে খোরশেদকে তাড়া করে। খুরশেদ ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যেতে কিছুদুরে তাকে খালেক ধাওয়া করে। এসময় হুচুট খেয়ে খোরশেদ পড়ে গেলে তাকে উপর্য পরিমাণ হাঁসুয়ার কোপানো হয়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত ৮ টার দিকে তিনি মারা যান।
বাগমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সেলিম হোসেন জানান, রাস্তা বিরোধের জের  প্রতিবেশী আঃ খালেক নৃশং¦স ভাবে কুপিয়ে খোরশেদকে খুন করা হয়েছে। ঘটনার পরপরই আমিসহ আমার সংগীয় ফোর্স ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করেছি। তবে হত্যাকারী আ. খালেক ও তার স্ত্রী পালিয়েছে। এব্যাপারে গতকাল সোমবার বেলা ১১টার দিকে নিহতের ছেলে লালন বাদি হয়ে একটি হত্যা মামলা করেছেন। আসামীদেরকে আটকের চেষ্টা চলছে বলে জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ