বৃহস্পতিবার ০১ অক্টোবর ২০২০
Online Edition

সুচির নোবেল পুরস্কার বাতিলের দাবি

স্টাফ রিপোর্টার : মিয়ানমারে মুসলিম গণহত্যা, নারী ধর্ষণ এবং শিশু হত্যার ঘটনায় অং সান সু চির নোবেল পুরস্কার বাতিলের দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন, ইসলামী ছাত্রসেনা ও কলরবসহ বিভিন্ন সংগঠন। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে পৃথক মানববন্ধন থেকে এ দাবি জানানো হয়।
মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আং সান সু চি শান্তি জন্য নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন। অথচ তার দেশেই মুসলিমদের ওপর অমানবিক নির্যাতন চালানো হচ্ছে। নারীদের ধর্ষণ করাসহ নারী-পুরুষ, শিশুদের হত্যা করা হচ্ছে। মিয়ানমারে এ ধরনের জঘন্য কার্যকলাপ চলায় সু চির নোবেল পুরস্কার বাতিল করা উচিত।
তারা বলেন, মুসলিমরা কোন মৌলবাদী সংগঠন ও সন্ত্রাসী গোষ্ঠী নয়। অথচ মিয়ানমারে পাখির মতো গুলী করে মুসলিমদের হত্যা করা হচ্ছে। এভাবে কোন পশুকেও হত্যা করা যায় না। তাই সকল মুসলিম রাষ্ট্রকে একত্রিত হয়ে এর প্রতিবাদ করতে হবে।
বাংলাদেশ মানবাধিকার ফাউন্ডেশন আয়োজিত মানববন্ধনে নেতৃত্ব দেন সংগঠনটির মহাসচিব এডভোকেট কামাল হোসেন। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির চেয়ারম্যান ও সাবেক আইজিপি আব্দুর রহিম খান। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনটির ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি মুস্তাফিজুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক সলিমউল্লাহ সেলিম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক রাকিব উদ্দিন রকিব প্রমুখ।
বাংলাদেশ মানবাধিকার ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান পুলিশের সাবেক আইজি আব্দুর রহিম খান বলেন, মায়ানমারে মুসলিমদের ওপর যে ধরনের অত্যাচার চালানো হচ্ছে তা অমানবিক। অবিলম্বে শিশু হত্য, নারী ধর্ষণ বন্ধে বিশ্ব বিবেককে পদক্ষেপ নিতে হবে।
অপরদিকে ইসলামী ছাত্রসেনা আয়োজিত মানববন্ধনে প্রধান অতিথি ছিলেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী।
ইসলামী ছাত্রসেনা ঢাকা মহানগর সভাপতি শেখ ফরিদ মজুমদারের সভাপতিত্বে এতে আরও উপস্থিত ছিলেন ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় পরিষদের অর্থ সম্পাদক অ্যাডভোকেট শাহীদ রিজভী, ইসলামী ছাত্রসেনা কেন্দ্রীয় পরিষদের সভাপতি এম মনির হোসাইন প্রমুখ। ইসলামিক ফ্রন্ট বাংলাদেশ ঢাকা মহানগরের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর আলম চৌধুরী বলেন, বৌদ্ধ ধর্মের প্রবর্তক গৌতম বুদ্ধ একটা কথা বলতেন ‘জীব হত্যা মহাপাপ’। কিন্তু আজ কোন অজুহাতে বৌদ্ধ সংখ্যাগরিষ্ঠ রাষ্ট্র মিয়ানমারে মুসলিম গণহত্যা চলছে।
তিনি বলেন, মিয়ানমারে মুসলিমদের মানুষ তো দূরের কথা প্রাণীও ভাবছে না। যেভাবে পারছে মুসলিমদের ওপর নৃশংসভাবে গণহত্যা, শিশুদের ওপর নির্যাতন, নারীদের ধর্ষণ করা হচ্ছে। কিন্তু দুঃখের বিষয় অমানবিক হত্যাযজ্ঞের পরেও এর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।
এদিকে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মিয়ানমারে হত্যাযজ্ঞের প্রতিবাদে মানববন্ধন করে জাতীয় শিশু কিশোর সংগঠন কলরব। সংগঠনের পরিচালক রশিদ আহমাদের নেতৃত্বে শতাধিক শিশুকিশোর মানববন্ধনে অংশ নেয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ