সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

সিল্ক রোড উন্নয়নে পাকিস্তানকে ৩৫ বিলিয়ন ডলার দিবে চীন

২৫ নবেম্বর, জি নিউজ, ব্লুমবার্গ: পাকিস্তানের সাথে ৪৬ বিলিয়ন ডলার ‘সিল্ক রোড’ চুক্তি করছে চীন । ৪৬ বিলিয়ন ডলারের মধ্যে  ৩৫ বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করবে চীন। আর পাকিস্তানকে যোগাড় করতে হবে ১১ বিলিয়ন ডলার। ১১ বিলিয়ন ডলার যোগাড় করতে পারলেই আগামী বছর এই বাণিজ্য পথ উন্নয়নের কাজ শুরু হবে। অন্যথায় প্রকল্পটি থেমে যাবে। পাকিস্তানের উন্নয়ন ও সংস্কারক মন্ত্রী আহসান ইকবাল লন্ডনে এক সাক্ষাৎকারে এ কথা জানান।
বেশ কয়েকমাস ধরেই পাকিস্তান, ভারত, বাংলাদেশ ও দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশ সহ এশিয়া ও মধ্যপ্রাচ্য হয়ে ইউরোপীয় দেশগুলার সাথে চীনের বাণিজ্যপথ সম্প্রসারণ করার জন্য একটি আন্তমহাদেশীয় বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল গড়ে উঠার কথা। আড়াই হাজার বছর আগে চীন শিল্করোড বা রেশম পথের মাধ্যমে এশিয়া, পারস্য ও আফ্রিকার সাথে এক সুদূর যোগাযোগ ব্যবস্থ’া গড়ে তুলেছিল। শি জিন পিং প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর এই রোড পুনরায় সংযোগ করার চিন্তা করেন। যা বিশ্ব বাণিজ্য-ব্যবস্থায় এক নতুন দিগন্ত উন্মোচন করবে বলেই সবার বিশ্বাস।
সেপ্টেম্বর মাসে শি কাজাখাস্তানের নজরবায়েভ বিশ্ববিদ্যালয়ে ‘সিল্ক রোড ইকোনমিক বেল্ট’ শীর্ষক এক নতুন পররাষ্ট্রনীতির  ঘোষণা দিয়েছিলেন। এর লক্ষ্য হচ্ছে, ইউরেশিয়াজুড়ে আন্তর্জাতিক সহায়তা ও যৌথ উন্নয়ন নিশ্চিত করা। এ প্রচেষ্টায় সফল হতে শি জিন পিং পাঁচটি সুনির্দিষ্ট লক্ষ্য নির্ধারণ করেছেন: অর্থনৈতিক উন্নয়ন জোরদার, সড়ক যোগাযোগ উন্নতকরণ, বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি, মুদ্রা রূপান্তর সহজীকরণ, বিভিন্ন দেশের জনগণের মধ্যে যোগাযোগ বৃদ্ধি।
চীন এখন দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনৈতিক শক্তি। চীনের সঙ্গে এ বাণিজ্যিক পথ গড়ে তোলার ব্যাপারে আগ্রহী বাংলাদেশ ভারতসহ দক্ষিণ এশিয়ার অন্যান্য দেশ। পাকিস্তানের সঙ্গে সীমান্ত গোলমাল নিয়ে চীনের এখন একটু বৈরি সম্পর্ক। তারপরও এ চুক্তির মাধ্যমে হয়তো দু’দেশের বৈরিতা কিছুটা ঘুঁচবে। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ অনেক দিন থেকেই এ চুক্তির জন্য আগ্রহী ছিলেন। চীন ও দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে বাণিজ্য সম্পর্ক উন্নত করার জন্য সিল্করোড সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘এক বেল্ট, এক রোড’। এই রোডের আওতায় থাকবে হাইওয়ে, রেলপথ ও বিমানপথ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ