বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

প্রকৌশলী গোলাম রহমান হত্যায় গৃহকর্মীর মৃত্যুদন্ড

স্টাফ রিপোর্টার : সড়ক ও জনপথ বিভাগের সাবেক অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী গোলাম রহমান হত্যা মামলায় তার বাসার গৃহকর্মীকে মৃত্যুদন্ড এবং তার এক সহযোগীকে যাবজ্জীবন কারাদ- দিয়েছে আদালত। গতকাল  বুধবার ঢাকার মহানগর দায়রা জজ কামরুল হোসেন মোল্লা সাড়ে পাঁচ বছর আগের এ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন। মৃত্যুদন্ডের আদেশ পাওয়া নূর ইসলাম রায়ের সময় কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন। তার চাচাতো ভাই যাবজ্জীবনের আসামী লাভলুর রহমান পলাতক।
এ আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের অতিরিক্ত কৌঁসুলি তাপস পাল জানান, ২০১১ সালের ১১ মে কলাবাগানের লেক সার্কাস এলাকার বাসা থেকে গোলাম রহমানের হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। ওই ঘটনায় তার স্ত্রী সাবেক মহিলা সংসদ সদস্য শাহানা রহমান তাদের বাড়ির গৃহকর্মী নূর ইসলামসহ অজ্ঞাতপরিচয় আসামীদের বিরুদ্ধে কলাবাগান থানায় এই মামলা দায়ের করেন। হত্যাকান্ডের তিন দিনের মাথায় যশোরের ঝিকরগাছা থেকে নূর ইসলামকে র‌্যাব গ্রেপ্তার করে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, গোলাম রহমানের স্ত্রী দুই মেয়েকে নিয়ে ঝিনাইদহ গ্রামের বাড়িতে গেলে বাসায় ছিলেন শুধু গোলাম রহমান ও নূর ইসলাম। সে সময় র‌্যাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়, চুরির জন্যই ওই বাসায় কাজ নিয়েছিলেন নূর ইসলাম। বাসা প্রায় ফাঁকা পেয়ে তিনি ঘটনার রাতে গোলাম রহমানের খাবারে ঘুমের ওষুধ মিশিয়ে দেন। গৃহকর্তা ঘুমিয়ে পড়লে লাভলুকে তিনি বাড়িতে ঢোকান। তারা ৭০ ভরি সোনার গয়না ও ৭০ হাজার টাকা নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার সময় গোলাম রহমান জেগে উঠলে হাত-পা বেঁধে মাথায় আঘাত করে তাকে হত্যা করেন নূর ইসলাম ও লাভলু।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ