বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

নির্বাচনে যারা সেনা মোতায়েনের বিরোধিতা করে তারা ভারতের দালাল - শফিউল আলম প্রধান

২০ দলীয় জোট নেতা ও জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান বলেছেন, আওয়ামী লীগ কখনোই বাংলাদেশে একটি শক্তিশালী সেনাবাহিনী দেখতে চায় নাই। এই কারণেই দিল্লীর নীল নকশায় স্বাধীনতার পর পরই আর্মির বিকল্প রক্ষীবাহিনী গঠন করা হয়। আর একদলীয় বাকশাল কায়েম করে কারা গণতন্ত্রের কবর রচনা করেছে দেশবাসী তা জানে। ইতিহাস সাক্ষী ’৭৫ এর ৭ই নভেম্বরের পর শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়ার নেতৃত্বে রক্ষীবাহিনী বিলুপ্ত করে আধুনিক সেনাবাহিনীর পুনর্গঠন শুরু হয়। আফসোস আবারও আওয়ামী শাসনে পিলখানায় নির্মম সেনা হত্যাযজ্ঞ চালিয়ে আর্মির মেরুদ- ভেঙে দেওয়ার চেষ্টা চলে। জাতীয় নির্বাচনে সেনা মোতায়েনের প্রস্তাবকে সমর্থন করে তিনি বলেন যারা এর বিরোধিতা করে তারা ভারতের দালাল। নিজ দেশের নির্বাচনে দেশপ্রেমিক সৈনিকদের ভূমিকা পালনে বাধা কোথায়? শাসকদের উদ্দেশে তিনি বলেন নির্বাচন কমিশন সম্পর্কে বেগম জিয়ার প্রস্তাবকে উড়িয়ে দেবেন না। শান্তিপূর্ণ সমাধানের এটাই শেষ আলোর রেখা। এরপর যা হবে তা কারো জন্য কল্যাণকর নয়।
গতকাল বুধবার বিকেল ৩টায় বগুড়ার নবাব বাড়ী রোডস্থ টিএমএসএস কনফারেন্স হলে বগুড়া জেলা জাগপা আয়োজিত বগুড়া জেলা জাগপা সভাপতি ও কেন্দ্রীয় সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আমির হোসেন মন্ডলের স্মরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বগুড়া জেলা জাগপার সহসভাপতি মোঃ ইমারুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে, সাধারণ সম্পাদক মুঞ্জুরুল কাদের তুহিন ও যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মোখলেছুর রহমানের পরিচালনায় বক্তব্য রাখেন জাগপা সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, বগুড়া জেলা বিএনপি সভাপতি ভিপি সাইফুল ইসলাম, জাগপা সহসভাপতি খন্দকার আবিদুর রহমান, রকিব উদ্দিন চৌধুরী মুন্না, শিক্ষা ও ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক শামীম আক্তার পাইলট, জেলা বিএনপির জয়নাল আবেদীন চান, এডভোকেট রাফী পান্না, এম আর ইসলাম স্বাধীন, এ.কে.এম. তৌহিদুল আলম মামুন, সাংবাদিক নেতা মহসিন আলী রাজু, মীর্জা সেলিম রেজা, যুব জাগপা সাধারণ সম্পাদক শেখ ফরিদ উদ্দিন, সহসভাপতি মাহিদুর রহমান বাবলা, যুগ্ম সম্পাদক ইব্রাহিম জুয়েল, জাগপা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুল আলম, যুগ্ম সম্পাদক শ্যামল চন্দ্র সরকার, এলডিপি’র নাজির আহমেদ, ইসলামী ঐক্যজোটের ইঞ্জিনিয়ার শামসুল হক, শ্রমিক দলের লিটন শেখ বাঘা, জাগপার হেলাল উদ্দীন শাকিদার, মীর ওসমান আলী শুভ শেড, আবু রায়হান, যুব জাগপার জাহাঙ্গীর আলম, জাগপা ছাত্রলীগের মেহেদী হাসান, আমির হোসেন মন্ডলের ছেলে মাসুদুল হাসান প্রমুখ। 
সভায় জাগপা সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা খন্দকার লুৎফর রহমান বলেন, বেগম খালেদা জিয়া তারেক রহমানসহ জিয়া পরিবারের বিরুদ্ধে বহুমুখী ষড়যন্ত্র হচ্ছে। এই ষড়যন্ত্র বন্ধ না হলে বগুড়ার মাটি থেকেই প্রতিরোধ সংগ্রাম শুরু হবে।
বগুড়া জেলা বিএনপি সভাপতি, ভিপি সাইফুল ইসলাম গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার ও স্বাধীনতা রক্ষার সংগ্রামে সকল জাতীয়তাবাদী দেশপ্রেমিক শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ সংগ্রাম গড়ে তোলার আহ্বান জানান। প্রেস বিজ্ঞপ্তি। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ