বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

প্রতিবন্ধী কাজল অন্যের বোঝা হতে চায় না

খুলনা অফিস ঃ মহিউল ইসলাম কাজল। সে একজন শয্যাশায়ী প্রতিবন্ধী। তার ডান হাতসহ পুরো শরীরই অচল। বাম হাত যা কিছুটা নাড়াতে পারছেন তা দিয়েই নিজের রোজগার করে চলেছেন। অন্যের বোঝা হতে চায় না কাজল। বাম হাত দিয়ে কাজ করার জন্য তিনি ব্যবহার করেন বিশেষ ধরণের তৈরি একটি দন্ড। দন্ড দিয়ে মোবাইল ফোনের বাটন টিপে টিপে আস্তে রিচার্জ, বিকাশে টাকা প্রেরণ, কম্পিউটার কম্পোজ, ই-মেইল পাঠানো, ছবি তোলা, ছবি ভিডিও/এডিট করেন। কাজল কম্পিউটার ট্রেনিং কোর্সও করান।
খুলনা মহানগরীর মিয়াপাড়া পাইপের মোড় গেলেই চোখে পড়ে ভিন্নধর্মী একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। কাজল কম্পিউটার খুলনা। পরিচালনায় রয়েছেন মহিউল ইসলাম কাজল। প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বয়স যখন ১৪-১৫, তখন প্রথম বই হাতে পাই। কিছুটা পড়েই জিদ করে ছুঁড়ে ফেলেছেন। এরপর নিজ ইচ্ছায় আস্তে আস্তে অক্ষর যোগ করে করে শেখেন বানান। এরপর রেডিওর ইংরেজি সংবাদ আর টেলিভিশনের ইংরেজি প্রোগ্রাম থেকে ইংরেজি পাঠটাও শিখে নেন। ২০০৩ সালে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের থেকে প্রাপ্ত ১০ হাজার টাকার আর্থিক ঋণ দিয়ে একটি মোবাইল ফোন সেট আর সিম কিনে শুরু করেন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানটি। পরবর্তীতে আত্মীয়ের কাছ থেকে উপহার পাওয়া একটি ক্যামেরার মাধ্যমে শুরু করেন ছবি তোলার ব্যবসা। ছবি তোলা, রিচার্জ করাসহ সকল কাজে সাহায্য করে যাচ্ছেন তার সহধর্মিনী শিরীন ইসলাম। স্ত্রী ছাড়া তার পরিবারে হুমায়রা নামের একটা মেয়েও রয়েছে। সে সপ্তম শ্রেণিতে পড়ে। কাজলের ছোট বেলায় ইচ্ছা ছিল ইঞ্জিনিয়ার হবে। কিন্তু শারীরিক অক্ষমতার জন্য তা সম্ভব হয়নি। তিনি মেয়ের মাধ্যমে তার সে স্বপ্ন পূরণ করতে চান। তিনি তার বিশেষায়িত খাটে শুয়ে থাকতে চান না। তিনি একটু সুচিকিৎসা করাতে চান। যার জন্য তিনি যে কোন সাহায্য নিতে রাজি আছেন। তিনি বলেন, বিজ্ঞানের এত উন্নতি, আমি একটু দেখতে চাই আমার কি হয়েছে? একথা বলতেই চোখের কোনে জল দেখা দিল। তার নিরলস পরিশ্রম দেখে ‘বিডি ডট কম’ নামের একটি অনলাইনভিত্তিক সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান তার জন্য ব্রডব্যান্ড লাইন ফ্রি করে দিয়েছেন। কাজলের ঠিকানা ঃ ৬৯, মিয়াপাড়া মেইন রোড, খুলনা। যোগাযোগ ঃ ০১৭৭৭-১৫৪৯৮৭।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ