শুক্রবার ১৪ আগস্ট ২০২০
Online Edition

লালমনিরহাটে বাড়ি ভাংচুর করে পরিবারকে জীবন নাশের হুমকি দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা

লালমনিরহাট সংবাদদাতা : লালমনিরহাটে পূর্বশত্রুতার জের ধরে বাড়ি ভাংচুর নগদ টাকা ও স্বর্ণঅলংকার লুট, উল্টো বাড়ির মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করে ওই ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে হুমকি দিচ্ছে সন্ত্রাসীরা। এলাকাবাসী ও মামলার বিবরণে জানা গেছে লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের কাশিপুর গ্রামের মোঃ আঃ সবুর এর ছেলে মোঃ জাহেদুল ইসলাম (৩৪) এর বাড়িতে পূর্বশত্রুতার জের ধরে ঘটনাার দিন দিবাগত রাতে একই এলাকার মৃত্যু সিরাজুল হকের ছেলে মোঃ ওমেদ আলী মিস্ত্রী (৫০) তার সন্ত্রাসী ছেলে শিমুল মিয়া (২২), মোঃ শামীমা (২০), মোঃ নাজমুল (১৯) ও মোঃ নাহিত (১৮) তার স্ত্রী মোছাঃ শিল্পী বেগম (৪০) পরিকল্পিত ভাবে অস্ত্র-সস্ত্র নিয়ে মোঃ জাহেদুল ইসলামের বাড়িতে হামলা, ভাংচুর ও এলোপাতারী মার পিট করে স্বর্ণালংকার যার আনুমানিক মূল্য ৮০ হাজার টাকাসহ নগদ ৬০ হাজার টাকা লুট-পাট করে নিয়ে যায়। ঘটনার ৩দিন পরে উল্টো নিজের গায়ে খুন ও জখম করিয়ে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়ে ওই বাড়ির মালিক মোঃ জাহেদুল ইসলামসহ ৬জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ১২/১৮০। অপর দিকে বাড়িতে হামলাকারী সন্ত্রাসী মোঃ ওমেদ আলী গং কে আসামী করে বাদী হয়ে মোঃ জাহেদুল ইসলাম লালমনিরহাট সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন, মামলা নং ০৭/১৭৬। এমন হামলার ঘটনায় প্রায় ২লক্ষ টাকার ক্ষয়-ক্ষতি হয়েছে মর্মে সাংবাদকিদের অভিযোগ করে বলেন তাদের মামলা দায়েরের ২দিন আগে মামলা করলেও সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্য জীবন নাশের হুমকী দিচ্ছেন। মামলা দায়েরের প্রায় ৫মাস হলেও আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় আবারও বড় ধরনের হামলার আশংকা প্রকাশ করেছেন মোঃ জাহেদুল ইসলাম। ওই ভাংচুরের ঘটনায় ছবিসহ কয়েটি জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হওয়ায় সন্ত্রাসীরা আরোও বেপরোয়া হয়ে মামলা তুলে নেওয়ার অব্যাহত হুমকি দিয়ে আসছেন। এছাড়া তাদের প্রকৃত ঘটনা আড়াল করতে ১টি পত্রিকায় প্রতিবাদ দিয়ে তাদের অপকর্ম “শাক দিয়ে মাছ ঢাকানোর” অপচেষ্টায় লিপ্ত রয়েছেন সুচতূর মোঃ ওমেদ আলী মিস্ত্রি। সে এতটাই কৌশলি, যখন যে দল ক্ষমতায় আসে সে তখনই সেই দলের কতিপয় নেতার ছত্র-ছায়ায় ওই পরিবারটির উপর নির্যাতন চালায়। তার এ ধরনের অপকর্মের বিরুদ্ধে এলাকাবাসী কোন প্রতিবাদ করার সাহস পায় না। মিথ্যা মামলায় হয়রানির স্বীকার জাহেদুলের পরিবারটি লালমনিরহাট পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন। উল্লেখ্য তিনি আতংক, ভয়ভীতির মধ্যদিয়ে জীবন যাপন করছেন বলে ওই ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারটি মঙ্গলবার সাংবাদিকদের জানায়। তবে অভিযোগ রয়েছে মহেন্দ্রনগর, হারাটী বড়বাড়ী ও পঞ্চগ্রাম এলাকায় কোন কিছু ঘটলেই রাজনৈতিক ছত্র-ছায়ায় জড়িয়ে  নিয়ে যাওয়া হয় থানা থেকে আদালত পাড়া পর্যন্ত। এতে করে অহেতুক গ্রামের সহজ-সরল মানুষ গুলো প্রতিনিয়ত হয়রানি ও আর্থিক ভাবে ক্ষতির স্বীকার হচ্ছেন বলে অভিযোগ প্রকাশ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ