বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

আওয়ামী লীগ তাদের নেতা নির্বাচিত করতে পারেনি বলেই তারেক রহমানকে এত ভয় -ড.মোশাররফ

স্টাফ রিপোর্টার : বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেছেন, বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার পরে তারেক রহমানকেই দলের নেতা নির্বাচিত করে রেখেছে বিএনপি। কিন্তু আওয়ামী লীগ তাদের নেতা নির্বাচিত করতে পারেনি। তাই তারেক রহমানকে তাদের এত ভয়। তিনি বলেন, তারেক রহমান এক-এগারোর সরকারের ষড়যন্ত্রের শিকার।  ওই সরকার দুই নেত্রীকে মাইনাস করার নামে বিএনপিকে মাইনাস করতে চেয়েছিল।
গতকাল বুধবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন। বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৫২তম জন্মদিন উপলক্ষে জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল এ আলোচনা সভার আয়োজন করে।
তিনি বলেন, বিএনপির প্রধান কাজ হচ্ছে দেশে গণতন্ত্র, জনগণের নিরাপত্তা ও অধিকার ফিরিয়ে দেয়া। যাতে জনগণ সুষ্ঠু ও ভয়হীন পরিবেশে ভোট দিতে পারে। সেই পরিস্থিতি  তৈরি করা।
নির্বাচন কমিশন পুনর্গঠন ও শক্তিশালী করতে দলের চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার প্রস্তাব আওয়ামী লীগের প্রত্যাখ্যানের নিন্দা জানিয়ে ড. খন্দকার মোশাররফ বলেন, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হোক এটা আওয়ামী লীগ চায় না। সে কারণেই তারা এ প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করেছে।
আলোচনায় অংশ নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ভিসি অধ্যাপক এমাজ উদ্দিন আহমেদ বলেন, আগামী বছর কিংবা অল্প সময়ের মধ্যে যদি আপনারা তারেক রহমানকে কাছে পেতে চান তাহলে বিএনপির সাংগঠনিক তৎপরতা ও ক্ষমতা বৃদ্ধি করুন। শুধু ঢাকায় বসে রাজনীতি বেশী ফলপ্রসূ হবে না। ঢাকার বাইরে গ্রাম-অঞ্চলে সংগঠনকে সংগঠিত করতে হবে। আজ আমরা মুক্তিযুদ্ধের চেতনা, জনগণের নিরাপত্তা ও অধিকারবোধ হারিয়ে বসেছি।
স্বেচ্ছাসেবক দলের  সভাপতি শফিউল বারী বাবুর সভাপতিত্বে বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নুল আবেদীন,  স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরাফত আলী সপু, সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদের ভূইয়া জুয়েল, মোস্তাফিজুর রহমান, সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, ইয়াছিন আলী প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ