বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

বৃটিশ প্রধানমন্ত্রীকে ট্রাম্পের অসৌজন্যমূলক আমন্ত্রণে সমালোচনা

১৮ নবেম্বর, দ্য গার্ডিয়ান : ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে’কে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন নব নির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কিন্তু আমন্ত্রণের সময় তার ব্যবহৃত ভাষা দেখে হতবিহ্বল হয়ে গেছেন ব্রিটেনের সরকারি কর্মকর্তারা।
গার্ডিয়ানের এক খবরে বলা হয়, বেশ অস্বাভাবিক ও অপ্রেসিডেন্টসুলভ কায়দায় আমন্ত্রণ জানান ট্রাম্প। তাদের কথোপকথনের স্ক্রিপ্ট ফাঁস হয়ে গেছে। এতে দেখা যায়, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রীকে ট্রাম্প বলছেন, ‘আপনি যদি আমেরিকায় আসেন, তবে আপনার উচিত হবে আমাকে জানানো।’ এ স্ক্রিপ্টের সত্যতা অস্বীকার করেনি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়।
বিলিয়নিয়ার ট্রাম্প নির্বাচনে জয়লাভের পর এটিই মে’র সঙ্গে তার প্রথম কথোপকথন ছিল। দু’দেশের ‘বিশেষ সম্পর্কে’র কথা উভয় নেতা পুনর্ব্যক্ত করবেন, এমনটাই হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ট্রাম্প যেভাবে মে’কে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন, তা অনেক টুইটার ব্যবহারকারীর মতে, একজন বন্ধুকে আমন্ত্রণ জানানোর মতো হয়ে গেছে, রাষ্ট্রীয় আমন্ত্রণ নয়। ব্রিটেনের দ্য টাইমস পত্রিকা জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার দু’নেতার মধ্যে ১০ মিনিটের ফোনালাপ হয়। এ ফোনালাপের সরকারি প্রতিলিপিতে ট্রাম্পের এমন আমন্ত্রণ রয়েছে। কথোপকথনে ট্রাম্প বলেন, তিনি ব্রিটেনের রাণীর বড় ভক্ত। তিনি রাণীকে তার শুভেচ্ছা পৌঁছে দিতেও প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ