সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

উষ্ণতা রোধে ঐক্যবদ্ধ ১৯৭টি দেশের কর্মপদ্ধতি ঘোষণা

১৮ নবেম্বর, বিবিসি : জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার দাবিতে বিক্ষোভরত   জলবায়ুর পরিবর্তন ঠেকাতে জরুরি ভিত্তিতে সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়ার ডাক দিয়েছেন বিশ্বের ১৯৭টি দেশের প্রতিনিধিরা। বৈশ্বিক উষ্ণতা ঠেকাতে ঐক্যবদ্ধভাবে ‘দ্য মারাকেশ অ্যাকশন প্রোক্লেমেশন’ নামের কর্মপদ্ধতি ঘোষণা করেছেন তারা। মরক্কোর মারাকেশে আয়োজিত সম্মেলনে দুইদিন ধরে নানা তর্ক-বিতর্কের পর গত বৃহস্পতিবার (১৭ নবেম্বর) এ কর্মপদ্ধতি ঘোষণা করা হয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, বৈশ্বিক উষ্ণতা ঠেকাতে ‘দ্য মারাকেশ অ্যাকশন প্রোক্লেমেশন’-এ সর্বোচ্চ রাজনৈতিক অঙ্গীকারের আহ্বান জানানো হয়েছে। নবনির্বাচিত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প প্যারিস জলবায়ু চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রকে সরিয়ে আনতে পারেন বলে যে হুমকি রয়েছে তার বিরুদ্ধেই দেশগুলো এ ঐক্যবদ্ধ জবাব দিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। অবশ্য, ওই ঘোষণায় সরাসরি ট্রাম্প বা যুক্তরাষ্ট্রের ব্যাপারে এ ধরনের কিছু সরাসরি উল্লেখ করা হয়নি। ‘দ্য মারাকেশ অ্যাকশন প্রোক্লেমেশন’-এ ১৯৭টি দেশ দৃঢ়ভাবে ঘোষণা করেছে যে বিশ্ব যে নজিরবিহীন হারে উষ্ণ হচ্ছে তা তারা বিশ্বাস করে। ঘোষণায় বলা হয়, বৈশ্বিক উষ্ণতা মোকাবিলা করা প্রত্যেক দেশের জন্যই ‘জরুরি দায়িত্ব’। ঘোষণায় আরও বলা হয়, ‘এ বছর বিশ্বজুড়ে এবং বিভিন্ন ফোরামে জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলার ক্ষেত্রে অসাধারণ অগ্রগতি লক্ষ্য করেছি। এ গতি অপরিবর্তনীয়। আমাদের কাজ হলো এ অগ্রগতির ওপর ভিত্তি করে দ্রুত গ্রিনহাউস গ্যাস নির্গতকরণ কমিয়ে আনা এবং অভিযোজন প্রচেষ্টাকে জোরালো করা।’
জলবায়ু চুক্তির পক্ষের প্রচারণাকারীরা এ ঘোষণাকে জলবায়ুর পরিবর্তন মোকাবিলা ইস্যুতে বড় ধরনের বৈশ্বিক ঐক্য বলে মনে করছেন। ক্যাম্পেইন গ্রুপ ক্রিশ্চিয়ান এইড-এর মোহাম্মদ আডৌ বলেন, ‘এত বেশি সংখ্যক রাষ্ট্রপ্রধান এক জোট হয়ে কোনও নীতিমালার ব্যাপারে প্রকাশ্য ঘোষণা দেয়ার ঘটনা বিরল। এর মধ্য দিয়ে বোঝা যায়, জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবিলা ইস্যুতে আন্তর্জাতিকভাবে সংখ্যাগরিষ্ঠের সমর্থন রয়েছে। এতে এও পরিষ্কার যে বিশ্বনেতারা প্রতিজ্ঞা করেছেন আমাদের পৃথিবীর ভবিষ্যতের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে যে পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে তা ট্রাম্পকে ছিনিয়ে নিতে দেবেন না তারা।’
ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসের প্রতিবেদনে বলা হয়, গত মঙ্গলবারই ‘দ্য মারাকেশ অ্যাকশন প্রোক্লেমেশন’-এর কাগজপত্র তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু তা নিয়ে মতভেদ থাকায় আলোচনা চলতে থাকে। শেষ পর্যন্ত বৃহস্পতিবার এ নিয়ে সমঝোতা হয়। উল্লেখ্য, প্রাণ-প্রকৃতি-পরিবেশের বিপন্নতার প্রেক্ষিতে গত বছরের ডিসেম্বরে প্যারিসে কপ ২১ নামের একটি সম্মেলনে প্রথমবারের মতো একটি জলবায়ু চুক্তির ব্যাপারে সম্মত হন বিশ্বনেতারা। গত এপ্রিলে ১৭৫টি দেশ ওই সমঝোতা চুক্তিতে স্বাক্ষর করে। চুক্তির আওতায় বিশ্বের উষ্ণতা বৃদ্ধির হার ২ ডিগ্রি সেলসিয়াসের নিচে রাখতে বিশ্বজুড়ে কার্বন নিঃসরণ কমানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ