সোমবার ১০ আগস্ট ২০২০
Online Edition

‘ইউরোপ ভেঙে পড়ার ঝুঁকিতে আছে’

১৮ নবেম্বর, রয়টার্স : ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ) ভেঙে পড়ার ঝুঁকিতে আছে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী ম্যানুয়েল ভালস। এ সমস্যা সমাধানে ফ্রান্স ও জার্মানিকে নেতৃত্ব দেওয়ার আহ্বান জানান।
জার্মানির রাজধানী বার্লিনে গত বৃহস্পতিবার জিওডুআতসে সেইতুং পত্রিকা আয়োজিত একটি অনুষ্ঠানে ম্যানুয়েল ভালস এসব কথা বলেন।
ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী ভালস বলেন, গত কয়েক দশক ধরে এ দুটো (ফ্রান্স ও জার্মানি) দেশকে অভিবাসী সংকট সামাল দিতে হচ্ছে। ইইউ সদস্যদেশগুলোর মধ্যে একতার অভাব রয়েছে। ব্রিটেনের ইইউ ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার বিষয়ও আছে। এ ছাড়া সন্ত্রাসের সমস্যায় মনোযোগ দিতে হবে। তিনি বলেন, ফ্রান্স এবং জার্মানি অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি, কর্মসংস্থানে গতি সঞ্চার এবং নাগরিকদের উদ্বেগ নিরসনে কঠোর পরিশ্রম না করলে বিপদ থেকেই যাবে।
অনুষ্ঠানে ভালস বলেন, ‘ইউরোপ ভেঙে পড়ার বিপদের মুখে আছে। সুতরাং এ ক্ষেত্রে জার্মানি এবং ফ্রান্সের বিশাল একটি দায়িত্ব রয়েছে।’ তিনি বলেন, করপোরেট কর কমিয়ে ফ্রান্সকে অর্থনীতির ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। অন্যদিকে, জার্মানি এবং ইইউকে অবশ্যই বিনিয়োগ বাড়াতে হবে। আর এটা করতে পারলে প্রবৃদ্ধি বাড়বে, কর্মসংস্থান সৃষ্টি হবে এবং প্রতিরক্ষা ব্যবস্থাও শক্তিশালী হবে।
ফ্রান্সের প্রধানমন্ত্রী ভালস বলেন, যদি তারা অসুবিধাগুলো বাদ দিয়ে ইউরোপের সব সুযোগ-সুবিধা বাড়াতে সক্ষম হন তাহলে অন্য দেশগুলো, যারা ইইউ ছেড়ে দিতে চায় তাদের জন্য দরজা উন্মুক্ত করে দিতে পারবেন। অভিবাসীরা যুক্তরাজ্যকে ইইউ থেকে বের হওয়ার পক্ষের প্রধান শক্তি ছিল মন্তব্য করে ভালস বলেন, গত বছরে এক মিলিয়নের বেশি অভিবাসী প্রবেশ করেছে। তাই সীমান্তে নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠা করতে হবে বা ফিরে পেতে হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ