ঢাকা, বৃহস্পতিবার 2 December 2021, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

মোদির বিরুদ্ধে ২৫ কোটি রুপি ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ!

অনলাইন ডেস্ক: দুর্নীতির বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণাকারী ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী থকাকালে আদিত্য বিরলা গ্রুপের কাছ থেকে ২৫ কোটি রুপি ঘুষ নেয়ার গুরুতর অভিযোগ উঠেছে।আর এই অভিযোগ উত্থাপন করেছেন আম আদমি পার্টির প্রধান, দিল্লির মুখ্যমুন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। খবর এনডিটিভি, দ্য ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস এর।

গতকাল মঙ্গলবার দিল্লির রাজ্য বিধান সভার এক বিশেষ অধিবেশনে কেজরিওয়াল দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে এ ঘুষ নেয়ার এই গুরুতর অভিযোগ উত্থাপন করেন। এ সময় তিনি নোট বাতিলেরও কড়া সমালোচনা করে মোদিকে 'কর্পোরেটদের বন্ধু' বলেও আখ্যায়িত করেন।

কেজরিওয়াল বলেন, 'প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা আছে বলেই বড় বড় ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কখনও অভিযানে যায় না আয়কর বিভাগ। শুধু দুর্নীতি তাড়ানোর নামে গরিবদের ভোগান্তি বাড়ানো হচ্ছে।'

এরপরই তিনি বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী যখন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, ২০১৩ সালের ১৫ অক্টোবর আদিত্য বিরলা গ্রুপের কাছ থেকে ঘুষ নেন। আয়কর বিভাগ সে সময়ে আদিত্য বিরলা গ্রুপের প্রেসিডেন্ট সুবেন্দু অমিতাভের বাসায় অভিযান চালায়। তারা সেখান থেকে ব্লাকবেরি মোবাইল ফোন ও ল্যাপটপ উদ্ধার বরে তাতে তল্লাশি করে। এ সময় ল্যাপটপে ২০১২ সালের ১৬ নভেম্বর এন্ট্রি করা গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রীকে ঘুষ দেয়ার তথ্য পান।'

কেজরিওয়াল আরও বলেন, 'এটিই স্বাধীন ভারতের ইতিহাসে প্রথম ঘটনা যে, ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রীর নাম কালো টাকা লেনদেনে জড়িয়েছে।'

এ সময় তিনি নোট বাতিলে গরিবের দুর্ভোগ এড়াতে সরাসরি রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখ্যার্জির হস্তক্ষেপও কামনা করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ