শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

খাদিজার তৃতীয় দফা অস্ত্রোপচার

স্টাফ রিপোর্টার : ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত সিলেটের কলেজছাত্রী খাদিজা বেগম নার্গিসের বাম হাত, বাম পা এবং মাথায় অস্ত্রোপচার হয়েছে। এটি ছিল তৃতীয় দফা অস্ত্রোপচার। রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ৮টায় খাদিজার অস্ত্রোপচার শুরু হয়ে দুপুর ২টায় শেষ হয়।

অস্ত্রোপচারের পর তাকে হাসপাতালের নিউরোলজি বিভাগে রাখা হয়েছে বলে তার মামা আবদুল বাসেত জানিয়েছেন।

গত ৩ অক্টোবর সিলেটে এমসি কলেজ কেন্দ্রে স্নাতক পরীক্ষা শেষে বের হয়ে হামলার শিকার হন সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের স্নাতক দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী খাদিজা। সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ও বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা বদরুলের ধারালো অস্ত্রের এলোপাতাড়ি আঘাতে খাদিজার মাথার খুলি ভেদ করে মস্তিষ্ক জখম হয়।

হামলার পর ঢাকায় এনে স্কয়ার হাসপাতালে ৪ অক্টোবর বিকালে খাদিজার অস্ত্রোপচার করে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়। ১৩ অক্টোবর তার লাইফ সাপোর্ট খোলা হয়। এরপর আঘাতে ‘মাসল চেইন’ কেটে যাওয়া তার ডান হাতে অস্ত্রোপচার করা হয় ১৭ অক্টোবর। দ্বিতীয় অস্ত্রোপচারের দুই-তিন সপ্তাহ পর চিকিৎসকরা বাম হাতে অস্ত্রোপচারের কথা জানিয়েছিলেন।

আব্দুল বাসিত বলেন, সে (খাদিজা) দ্রুত রিকভার করতে থাকায় আজই অপারেশন হলো। ডাক্তাররা জানিয়েছেন অপারেশন সাকসেসফুল। ২৬ অক্টোবর রাতে খাদিজাকে হাসপাতালে হাই ডিপেনডেন্সি ইউনিট থেকে কেবিনে নেওয়া হয়। এর আগে থেকেই মাঝে মাঝে তাকে হুইল চেয়ারে করে ঘোরানোর পাশাপাশি পাউরুটি, জেলি, লাচ্ছি ও চা খেতে দেয়া হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ