শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

চট্টগ্রামে বিপ্লব উদ্যানে মহানগর বিএনপির পুষ্পস্তবক অর্পণকালেও পুলিশের বাধা

চট্টগ্রাম অফিস : “ঐতিহাসিক ৭ নবেম্বর  বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষ্যে  চট্টগ্রামে বিপ্লব উদ্যানে মহানগর বিএনপির পুষ্পস্তবক অর্পণকালেও পুলিশের বাধা দিয়েছে। তা সত্বেও  বিএনপি নেতাকর্মীরা পুষ্পস্তবক অপর্ণ করে। এ সময় কেন্দ্রীয় বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সভাপতি ডা. শাহাদাত হোসেন বলেছেন, এই অবৈধ সরকার একদলীয় নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতায় এসে দেশে বাকশাল কায়েম করেছে। তারা একদলীয় বাকশালী কায়দায় দেশ পরিচালনা করছে। দেশের মানুষের ভোটাধিকার হরণ করে এখন রাজনৈতিক দলের সভা সমাবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। যা গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংবিধান পরিপন্থী। এই অবৈধ সরকার স্বৈরাচার এরশাদকেও হার মানিয়েছে। নব্য বাকশালী স্বৈরাচারের বিরুদ্ধে দেশের জনগণ ঐক্যবদ্ধভাবে গণপ্রতিরোধ গড়ে  তোলার আহ্বান জানান। ডা. শাহাদাত হোসেন ৭ নবেম্বর সকাল সকাল ১১ টায় “ঐতিহাসিক ৭ নভেম্বর  বিপ্লব ও সংহতি দিবস’ উপলক্ষে স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের স্মৃতি বিজড়িত ষোলশহরস্থ বিপ্লব উদ্যানে পুষ্পস্তবক অর্পণ করতে গেলে পুলিশ বাধা উপেক্ষা করে পুষ্পস্তবক অর্পণকালে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। সাধারণ সম্পাদক আবুল হাশেম বক্কর বলেন, দেশের মানুষ এই স্বৈরাচার সরকারের হাত থেকে মুক্তি পেতে চায়। স্বৈরতান্ত্রিক সরকারের বিরুদ্ধে এদেশের জনগণ গণতন্ত্রের মুক্তির সংগ্রামে এগিয়ে আসবে। পুষ্পস্তবক অর্পণকালে  অন্যান্যের মধ্যে ছিলেন বিএনপি নেতা ইয়াছিন চৌধুরী লিটন, ইকবাল চৌধুরী, জিএম আইয়ুব খান, শাহেদ বক্স, বাবু টিংকু দাশ, নগর ছাত্রদলের সভাপতি গাজী মোঃ সিরাজ উল্লাহ, বিএনপি নেতা মঞ্জুরুল আলম মঞ্জু, ছাইফুর রহমান শপথ, আব্দুল কাদের জসিম, জিয়াউর রহমান জিয়া, আতাউল্লাহ বাবু, মঞ্জুরুল আলম, খায়রুজ্জামান জুনু, মুহাম্মদ মুছা, আলাউদ্দিন সুমন, মুহাম্মদ হামিদ, সামিয়াত আমিন জিসান, ইয়াকুব আলী সিফাত, মোঃ শফি, মোঃ দিদার প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ