ঢাকা, শুক্রবার 18 September 2020, ৩ আশ্বিন ১৪২৭, ২৯ মহররম ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

ভারতে শিশু পাচার চক্রের সদস্য ৬ হাসপাতালকর্মী আটক

অনলাইন ডেস্ক: ভারতের দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য কর্ণাটকে নবজাতক এবং শিশু পাচার চক্রের সঙ্গে জড়িত থাকার দায়ে হাসপাতালের সাবেক ছয় কর্মীকে আটক করা হয়েছে। তিন পুরুষ এবং তিন নারীকে নিয়ে গঠিত চক্রে ল্যাবরেটরি টেকনিশিয়ান এবং নার্সও রয়েছে। এ চক্রটি হাসপাতাল থেকে নবজাতক এবং শিশুদের চুরি করে তা সন্তানহীন দম্পতির কাছে বিক্রি করতো।

তদন্ত কর্মকর্তা রাভি চানাননাভার বলেছেন, মহিশুর শহরের পাঁচটি বেসরকারি এবং একটি সরকারি হাসপাতালে এ চক্র সক্রিয় ছিল। এ ছাড়া, ব্যাঙ্গালুরের মতো বড় বড় নগরীর গৃহহীন এবং ভাসমান পরিবারগুলো থেকে নবজাতক এবং শিশু চুরির ঘটনাও ঘটেছে বলে জানান তিনি। এ সব নবজাতক এবং শিশুকে পরে প্রায় তিন হাজার ডলারে বিক্রি করা হয়েছে।

চক্রটি ১৫ নবজাতক এবং শিশুকে বিক্রি করেছে বলে তদন্তে জানা গেছে। হাসপাতালে সন্তান জন্ম দিতে আসা গরিব দম্পতিরা এ চক্রের শিকার হতো উল্লেখ করে তদন্ত কর্মকর্তা আরো বলেন, এ পর্যন্ত চুরি যাওয়া তিন শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে। বাকি শিশুদের উদ্ধারের তৎপরতা চলছে বলে জানান তিনি। এ চক্রের সঙ্গে ডাক্তারদের যোগসাজশ থাকার আভাসও দেয়া হয়েছে।

এ দিকে, চেন্নাইয়ের গৃহহীন শিশুদের সহায়তায় জড়িত অলাভজনক সংস্থা কারুনালিয়ার কর্মকর্তা পল সুন্দর সিং বলেছেন, ভারতে এ জাতীয় অনেক ঘটনা ঘটছে তার মধ্যে হাতে গোনা যে কয়টার কথা প্রকাশিত হয়েছে এটি তারই অন্যতম। শিশু অপহরণকে ভারতের অন্যতম বড় সংঘবদ্ধ অপরাধ হিসেবে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, এ জাতীয় চক্রের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে যেয়ে হিমসিম খাচ্ছে ভারতের পুলিশ। চেন্নাই নগরীর ফুটপাত থেকে চলতি বছরের গোড়ার দিকে শিশু অপহরণের যে সব ঘটনা ঘটেছে তার রহস্য এখনো সুরাহা হয় নি বলেও জানান তিনি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ