সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১
Online Edition

রংপুরে ২ শিক্ষার্থী ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড় ॥ আটক প্রধান আসামীর রিমান্ড মঞ্জুর

রংপুর অফিস : রংপুরের একটি নার্সিং ইন্সটিটিউটের দুই শিক্ষার্থীকে পালাক্রমে ধর্ষণের ঘটনায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করলেও অভিযুক্ত অন্যান্যদের গ্রেফতার করতে পারেনি। গত মঙ্গলবার রাতে ধর্ষক আলমগীরকে গ্রেফতার করে পুলিশ। গতকাল বুধবার সকালে ধর্ষিতা দুই শিক্ষার্থীকে মেডিকেল পরীক্ষার জন্য রমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যদিকে গ্রেফতারের পর আদালতে মামলার প্রধান আসামী আলমগীরকে চীফ জুডিশিয়াল আদালতে হাজির করা হলে বিচারক শফিউল আলম ৫দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।পুলিশ সূত্রে জানা গেছেন, গত বৃহস্পতিবার রাতে রংপুর নর্দান নার্সিং ইন্সটিটিউটের প্রথম বর্ষের দুই ছাত্রী সাগর পাড়া একটি ছাত্রাবাসে যায় তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থীদের কাছে নোট আনতে। এ সময় তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আলমগীর কৌশলে তাদের ঘরে নিয়ে আটক করে রাখে। পরে স্থানীয় কয়েকজন যুবককে ডেকে এনে ওই দুই শিক্ষার্থীকে রাতভর ধর্ষণ করে। বিষয়টি ওই দুই শিক্ষার্থী প্রথমে ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষকে জানালে অধ্যক্ষ বিষয়টি নিয়ে গড়িমসি করে আপোসের কথা বলে। গত মঙ্গলবার রাতে ওই দুই ছাত্রী ইন্সটিটিউট থেকে পালিয়ে এসে পুলিশকে ঘটনাটি খুলে বলে। পুলিশ দ্রুত অভিযান চালিয়ে ঘটনার মূল হোতা আলমগীরকে গ্রেফতার করে। সেই সাথে ভিকটিম দুই ছাত্রীকেও থানায় নিয়ে আসে। পরে এ ঘটনার শিকার এক ছাত্রী ৪ জনকে আসামী করে কোতয়ালী থানায় একটি মামলা করেন। মামলার পলাতক আসামীরা হচ্ছেন নিমাই শর্মা, সকিল আহমেদ ও পলাশ। রংপুরের জেলা প্রশাসক রাহাত আনোয়ারসহ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা কোতয়ালী থানা পরিদর্শন করেন। এসময় তারা ভিকটিমদের ন্যায় বিচারের আশ্বাস দেন এবং পুলিশকে অন্যান্য অপরাধিদের দ্রুত গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। রংপুর কোতয়ালী থানার অফিসার্স ইনচার্জ এবিএম জাহিদুল ইসলাম জানান, গ্রেফতারকৃতকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। বাকি আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টায় অভিযান চলছে। এদিকে ভিকটিম দুই ছাত্রীর অভিভাবক খবর পেয়ে রাতেই থানায় এসে যোগাযোগ করেন। 

অপরদিকে, উল্লিখিত ঘটনার প্রতিবাদে, সকল ধর্ষণকারীকে গ্রেফতার এবং দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে রংপুরের সাধারণ শিক্ষার্থী ও নাগরিকবৃন্দের ব্যানারে গতকাল দুপুর ১টায় রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে দেড় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন করা হয়। জাগো রংপুর আহ্বায়ক সহকারী অধ্যাপক ডা. সৈয়দ মামুনুর রহমানের সভাপতিত্বে মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বাসদ-এর জেলা সমন্বয়ক আব্দুল কুদ্দুস, প্রগতিশীল শিক্ষক ফোরামের জেলা আহ্বায়ক, বেরোবি’র বাংলা বিভাগের শিক্ষক ড. রিষিণ পরিমল, বাসদ-নেতা মমিনুল ইসলাম, রংপুর বিভাগ উন্নয়ন পরিষদের আহ্বায়ক, বিশিষ্ট সাংবাদিক আব্দুল ওয়াদুদ আলী, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের মহানগর-সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান, সংগঠক ও উন্নয়ন-কর্মী তানবীর হোসেন আশরাফী, সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামের সংগঠক গোলাপী বেগম, ছাত্র ফ্রন্টের নেতা যুগেশ ত্রিপুরা, মৌসুমী আক্তার মৌ, ছাত্র ফেডারেশনের নেতা প্রত্যয়ী মিজান, জাসদ ছাত্র লীগের মহানগর কমিটির সভাপতি ওসমান আলী, রংপুর মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থী আরিফ,আহাদ,রংপুর সরকারী কলেজের শিক্ষার্থী নিশাত প্রমুখ। অন্যদিকে জাতীয় সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফন্ট ও সমাজতান্ত্রিক মহিলা ফোরামসহ বিভিন্ন সংগঠন রংপুর প্রেসক্লাবের সামনে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে। এছাড়াও বিভিন্ন মহল তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। বক্তারা উল্লিখিত ঘটনার ধর্ষণকারীদেরসহ সকল ধর্ষণ-হত্যকাণ্ডে জড়িতদের গ্রেফতার ও তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ