সোমবার ১২ এপ্রিল ২০২১
Online Edition

পুলিশের কার্যক্রম মনিটরে একটি স্বাধীন কমিশন গঠনের সুপারিশ

স্টাফ রিপোর্টার : ভোগান্তি কমিয়ে পুলিশকে জনবান্ধব করে তুলতে বাহিনীর কার্যক্রম মনিটরের জন্য একটি স্বাধীন কমিশন গঠনের সুপারিশ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন। কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ গতকাল বুধবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে বলেন, সম্প্রতি রাষ্ট্রপতির কাছে দেয়া কমিশনের ২০১৫ সালের বার্ষিক প্রতিবেদনে এ সুপারিশ করা হয়েছে। গত ২৪ অক্টোবর রাষ্ট্রপতির কাছে হস্তান্তর করা বার্ষিক প্রতিবেদনের বিষয়ে জানাতেই সাংবাদিক সম্মেলনে আসেন দুদক চেয়ারম্যান।

পুলিশের বিষয়ে অনেক অভিযোগ রয়েছে জানিয়ে চেয়ারম্যান বলেন, “এগুলো দীর্ঘদিনের অভিযোগ। আমরা পুলিশের কার্যক্রম মনিটর করতে একটি স্বাধীন জুডিশিয়াল কমিশন গঠনের সুপারিশ করেছি। আমরা মনে করি, এটা করতে পারলে পুলিশ আরও অধিক জনবান্ধব হবে এবং মানুষ আরও বেশি সেবা পাবে।” তিনি জানান, বার্ষিক প্রতিবেদনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীসহ সরকারি সেবা, নিয়োগ, ক্রয় কার্যক্রম, নির্মাণ/ মেরামত/সংস্কার এবং ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের বিষয়েও বেশকিছু সুপারিশ করা হয়েছে।

পুলিশের কার্যক্রম মনিটর করতে ক্রিমিনাল জাস্টিস কমিশন গঠনের সুপারিশ করা হয়েছে প্রতিবেদনে। এ ছাড়া ফৌজদারি কার্যবিধিতে মামলার তদন্ত ও বিচারের জন্য সময়সীমা বেঁধে দেয়া এবং দেওয়ানী কার্যবিধিতে মামলা নিষ্পত্তির সময়সীমা বেঁধে দেয়ার সুপারিশও করা হয়েছে।

ইকবাল মাহমুদ বলেন, “পুলিশের কাজ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। তারা প্রবলেম সলভ্ করেন। আমরা মনে করি তাদের কার্যক্রম যদি একটি ইন্ডিপেনডেন্ট মনিটরিংয়ের আওতায় আনা যায় তাহলে একটা চেক অ্যান্ড ব্যালেন্স থাকে।” দেশে সার্বিকভাবে দুর্নীতি কমেছে বলে দাবি করে দুদক চেয়ারম্যান বলেন, “সার্বিকভাবে দেশে দুর্নীতি কমেছে। এ বছর আমাদের জিডিপির গ্রোথ সাত এর উপরে। একটি সাধারণ সূত্র হচ্ছে দুর্নীতি যদি কমে তাহলে (জিডিপি) গ্রোথ বাড়ে এবং দুর্নীতি বাড়লে গ্রোথ কমে।”

দুদক চেয়ারম্যানের সাংবাদিক সম্মেলনের কিছুক্ষণ আগে দুর্নীতির মামলায় ক্ষমতাসীন দলের সংসদ সদস্য আবদুর রহমান বদির সাজার রায় আসে। দুই বছর আগে সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে দুদকের করা মামলায় ঢাকার একটি আদালত কক্সবাজারের এই সংসদ সদস্যকে তিন বছরের কারাদণ্ড ও দশ লাখ টাকা জরিমানা করে।

এ প্রসঙ্গে এক প্রশ্নে ইকবাল মাহমুদ বলেন, “দুদকের সক্ষমতার অভাব আছে, কাজে গাফিলতিও আছে, তারপরও কমিশন তার কাজ করে যাচ্ছে। প্রভাবশালীদেরও আইনের আওতায় আনা হবে। যারাই দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকবেন তাদেরকে আইনের আওতায় আসতে হবে।”

দুদক কমিশনার এ এফ এম আমিনুল ইসলাম, কমিশনার নাসিরউদ্দিন আহমেদ, সচিব আবু মো. মোস্তফা কামাল এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ