বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

স্থগিত ইউপি নির্বাচনেও ব্যাপক অনিয়ম ও সহিংসতা

স্টাফ রিপোর্টার : স্থগিত হওয়া ইউপি নির্বাচনেও ব্যাপক অনিয়ম ও সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। জাল ভোট দেয়া, ভয়ভীতি দেখানো ও এজেন্টদের বের করে দেয়াসহ নানা অনিয়ম ও সংঘর্ষ হয়েছে বিভিন্ন এলাকায়। এসব অনিয়মের অভিযোগ এনে ৬টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি সমর্থিত প্রার্থীরা। এ ছাড়া কয়েকটি ইউনিয়নে বিএনপির এজেন্টদের বের করে দেয়ার অভিযোগ করেছেন প্রার্থীরা। গতকাল সোমবার সদ্যবিলুপ্ত ছিটমহলের ২২টি ইউনিয়নসহ প্রায় স্থগিত হওয়া ৪ শতাধিক ইউনিয়ন পরিষদে বিভিন্ন পদে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভোটের আগের রাতে ফেনী ও ঠাকুরগাঁওয়ে নির্বাচনী সহিংসতার খবর পাওয়া গেছে। 

বিভিন্ন এলাকার সংবাদদাতাদের পাঠানো সংবাদ থেকে জানা যায়, আখাউড়া উপজেলার ২টি ইউনিয়ন পরিষদে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর বিরুদ্ধে জাল ভোট, বহিরাগত লোক দ্ধারা ভোট প্রদানসহ বিভিন্ন অনিয়মের অভিযোগ এনে বিএনপি সমর্থিত দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচন বর্জন করেছেন। সকাল সাড়ে ১০টায় আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন পরিষদের বিএনপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মো: শাহ নোয়াজ খান নিজ বাড়িতে সাংবাদিক সম্মেলন করে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। একই অভিযোগ করে সকাল সাড়ে ১১টায় মনিয়ন্দ ইউনিয়ন নির্বাচনে বিএনপি চেয়ারম্যান প্রার্থী মো: রবিউল্লাহ ভূইয়াও বর্জনের ঘোষণা দেন। 

ঢাকার সাভার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী গোলাম মোস্তফা কলমা নির্বাচন বর্জন করেছেন। বরিশালের মুলাদী উপজেলার বাটামারা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির চেয়ারম্যান প্রার্থী ফজলুল হক মনি ভোট বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন সকাল ১০টার দিকে।

তিনি বলেন, তার প্রতিপক্ষ আওয়ামী লীগ প্রার্থী শহিদুল ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা তার কর্মীদের ভয়ভীতি দেখাচ্ছে এবং তার এজেন্টদের কেন্দ্র থেকে বের করে দেয়া হয়েছে।

ফেনী সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের বিএনপি প্রার্থী জিয়াউদ্দিন বাবলু ও বালিগাঁও ইউনিয়নের ফয়েজ পাটোয়ারিও একই অভিযোগে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। ফেনীতে স্থগিত থাকা ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগের রাতে গোলাগুলীতে সাতজন আহত হওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। আগুন দেয়া হয়েছে দুটি প্রাইভেট কারে।

রোববার রাতে সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের আমতলী বাজার এলাকার এ ঘটনায় দুই প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছেন। ঠাকুরগাঁও সদরের নারগুন ইউনিয়নের একটি কেন্দ্রে ভোটের আগের রাতে এক পক্ষের হামলায় অপরপক্ষের পাঁচ নারী আহত হয়েছেন। রোববার রাতে তেঁতুলতলা এলাকায় এ হামলা হয় বলে ঠাকুরগাঁও সদর থানার ওসি মশিউর রহমান জানান।

এর আগেও অনিয়মের কারণে স্থগিত কেন্দ্র শূন্য পদে উপনির্বাচন এবং সমভোটপ্রাপ্ত প্রার্থীদের মধ্যে পুনঃভোট- এ সবের সঙ্গে বিলুপ্ত ছিটমহলসহ দেশের অন্তত পৌনে চারশ ইউনিয়ন পরিষদে বিভিন্ন পদে ভোট অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ