বুধবার ০৫ আগস্ট ২০২০
Online Edition

পিএইচডি ডিগ্রি লাভ

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া-এর ১০৮তম একাডেমিক কাউন্সিল ও ২৩২তম সিন্ডিকেট সভার সিদ্ধান্তক্রমে রাশীদাহকে পিএইচডি ডিগ্রি প্রদান করা হয়। তার গবেষণার বিষয় ছিল ‘ফিকহ শাস্ত্রে মহিলা সাহাবীগণের অবদান : একটি পর্যালোচনা’ (CONTRIBUTION OF THE FEMALE SHAHABI IN THE ISLAMIC JURISPRUDENCE A STUDY) রাশিদাহ দাওয়াহ এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের অধীনে প্রফেসর ড.  শহীদ মুহাম্মদ রেজওয়ান-এর তত্ত্বাবধানে তার গবেষণাকর্ম সুসম্পন্ন করেন। তার গবেষণাকর্মের থিসিস মূল্যায়ন কমিটির প্রধান ছিলেন আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়, উত্তর প্রদেশ, ভারত-এর ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. মো. ইসমাইল এবং পরীক্ষা কমিটির আহ্বায়ক ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের প্রফেসর ড. মুহাম্মদ শামসুল আলম। ড. রাশিদাহ ইতঃপূর্বে একই বিশ্ববিদ্যালয় থেকে প্রফেসর ড. ওয়ালি উল্লাহর তত্ত্বাবধানে এমফিল ডিগ্রি অর্জন করেন। ড. রাশিদাহ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়, কুষ্টিয়া-এর দাওয়াহ এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স পরীক্ষায় ১ম শ্রেণীতে ১ম স্থান অকিার করেন এবং থিওলজী এন্ড ইসলামিক স্টাডিজ অনুষদে প্রথম হওয়ার গৌরব অর্জন করেন। তিনি গোপালগঞ্জ মহিলা মডেল মাদরাসা থেকে ১৯৯৮ ইং সনে দাখিল পরীক্ষায় প্রথম বিভাগ অর্জন এবং সম্মিলিত মেধা তালিকায় ৭ম স্থান ও মেয়েদের মধ্যে ১ম স্থান অধিকার করেন এবং ২০০০ ইং সনে গোপালগঞ্জ এসকে আলিয়া মাদরাসা থেকে আলিম পরীক্ষায় ১ম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। ড. রাশীদাহ বর্তমানে আন্তর্জাতিক ইসলামিক বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রামে (IIUC) সহকারী অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। রাশীদাহ নিয়মিত লেখালেখি ও গবেষণা করছেন। ইতোমধ্যেই জাতীয় ও আন্তর্জাতিক গবেষণামূলক জার্নালে তার ৭টিরও বেশি প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। ভবিষ্যতে তিনি বাংলাদেশ নারী শিক্ষা ও মানবিক মূল্যবোধ উন্নয়নে কাজ করতে আগ্রহী। তিনি গোপালগঞ্জ আলিয়া মাদরাসার সাবেক অধ্যক্ষ মাওলানা আবদুল হামিদের কন্যা ও বাংলাদেশ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী অধ্যাপক ড. আব্দুল মান্নানের সহধর্মিনী। তিনি এক পুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জননী। তিনি সকলের নিকট দোয়া প্রার্থী। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ