বুধবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২১
Online Edition

শালিখায় লক্ষাধিক টাকার সরকারি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ

মাগুরা সংবাদদাতা : মাগুরার শালিখা উপজেলার তালখড়ি ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তা থেকে লক্ষাধিক টাকার সরকারি গাছ কেটে নেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সাকাওয়াত হোসেন,সিদ্দিকুর রহমান ও কুড়োন সরদার নামে তিন ব্যক্তি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ করেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার পিয়ারপুর গ্রামের মোঃ তবিবার রহমান তোতা মিয়া সীমাখালী ও  চতুরবাড়ীয়া সড়ক থেকে বিভিন্ন প্রজাতির ছোট বড় ১৯টি গাছ কেটে নেয়। এর মধ্যে মাত্র ৪/৫টি গাছ ইউনিয়ন পরিষদে জমা দিয়ে বাকি সব গাছ বিক্রি করে প্রায় লক্ষাধিক টাকা আত্মসাৎ করেছে। অভিযোগকারী সিদ্দিকুর রহমানের সাথে কথা বললে তিনি বলেন, শুধু ঐ রাস্তার ১৯টি গাছই নয়। সে পিয়ারপুর ম-ল বাড়ি হতে ওয়াপদার ভেড়ি পর্যন্ত রাস্তার আরো ১০টি বিভিন্ন জাতের গাছ কেটে নিয়ে আত্মসাৎ করেছে। এসব গাছের কোন হদিস নাই। এব্যাপারে তালখড়ি ইউনিয়নের সচিব মো. আলী কদরের সাথে কথা বললে তিনি জানান, ১৯টি গাছের লগ আমার অফিসের সামনে রাখাছিল। পরবর্তীতে ঐ গাছ কোথায় গেছে তার জানা নেই। তালখড়ি ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারী মাহবুবুর রহমানের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন,কয়েকটি গাছ চেয়ারম্যান অফিসের সামনে রয়েছে। আর পিয়ারপুর সড়কের গাছের আমরা লিখিত প্রতিবেদন কর্তৃপক্ষের কাছে দাখিল করেছি। তবে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. মমিন উদ্দিনের সাথে কথা বললে তিনি আবেদন পাওয়ার কথা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি উপজেলা ইঞ্জিনিয়ার অফিসে তদন্তাধীন রয়েছে। প্রতিবেদন পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। উল্লেখ্য গত ২ মাস আগে প্রচন্ড বৃষ্টি ও ঝড়ে শালিখা উপজেলার বিভিন্ন সড়কে প্রচুর পরিমাণ গাছ উপড়ে পড়ে। এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণীর অসৎ ব্যক্তি পড়া ও খাড়া অনেক গাছ কেটে লুট পাট করেছে বলে জানা যায়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ