ঢাকা, সোমবার 30 January 2023, ১৬ মাঘ ১৪২৯, ৭ রজব ১৪৪৪ হিজরী
Online Edition

জিয়ার লাশ গুম করতে চেয়েছিলেন এরশাদ: নোমান

অনলাইন ডেস্ক: বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল নোমান বলেছেন, জিয়াউর রহমানের লাশ গুম করতে চেয়েছিলেন এইচ এম এরশাদ। প্রয়াত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) আ স ম হান্নান শাহ রাঙ্গুনিয়া থেকে জিয়ার মরদেহ চট্টগ্রাম সেনানিবাসে নিয়ে আসেন।

আজ সোমবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে হান্নান শাহর স্মরণসভায় নোমান  এসব কথা বলেন।

হান্নান শাহর সঙ্গে প্রথম পরিচয়ের কথা বলতে গিয়ে চট্টগ্রামের প্রভাবশালী এই নেতা বলেন, ‘হত্যার পর কিছু বিপথগামী সেনাসদস্য জিয়াউর রহমানকে লুকিয়ে রেখেছিলেন। চট্টগ্রামে অনেক খোঁজাখুঁজির খবর পেলাম, রাঙ্গুনিয়ায় একটি পাহাড়ের তলদেশে তাঁকে রাখা হয়েছে। আমি এবং বিশিষ্ট শ্রমিকনেতা আবদুল গফুর একটি বেবিট্যাক্সি করে সেখানে গেলাম। দেখি, ধানখেতের ওপর দিয়ে কয়েকজন ত্রিপল নিয়ে একটি লাশ নিয়ে আসছেন। দৌড়ে গিয়ে লাশের সামনে গেলাম। একজন আমাকে জিজ্ঞেস করলেন, হু আর ইউ। বললাম, আমি আবদুল্লাহ আল নোমান। পরে জানলাম তিনি হান্নান শাহ।’

আবদুল্লাহ আল নোমান বলেন, ‘তখনো হান্নান শাহর অন্তরে জিয়াউর রহমানের প্রতি যে ভালোবাসা, আনুগত্য এবং তাঁর সম্পর্কে জানা—সেটা ছিল বলেই জিয়ার মরদেহ আনতে গিয়েছিলেন তিনি। এ দায়িত্ব তিনি পালন না করলেও পারতেন। কারণ, এরশাদ তাঁকে বলেননি, এরশাদ তো লাশ গুম করে ফেলতে চেয়েছেন। হান্নান শাহ সে সময় চট্টগ্রামে মিলিটারি একাডেমির পরিচালক ছিলেন। সে সুবাদে তিনি জিয়ার মরদেহ প্রথম সেনানিবাসে নিয়ে আসেন। পরবর্তী সময়ে তাঁকে ফোর্স রিটায়ারমেন্টে পাঠানো হলো।’

হান্নান শাহকে একজন সাহসী নেতা উল্লেখ করে বিএনপির এই নেতা বলেন, তাঁর মনের মধ্যে যা কিছু, তা প্রকাশ করার ক্ষেত্রে তাঁর কোনো ভয়, দৈন্য ছিল না। সেদিনও তিনি ক্ষমতাসীন সরকারের কর্তৃত্ববাদী আচরণ, গুম খুন, জঙ্গিবাদসহ বিভিন্ন পর্যায়ে অত্যাচার-নির্যাতন সম্পর্কে বলিষ্ঠভাবে কথা বলেছেন। এটা কিন্তু সবাই বলেন না।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ