ঢাকা, বৃহস্পতিবার 2 December 2021, ১৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ২৬ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

হামলার আশঙ্কায় সর্বোচ্চ সতর্কাবস্থায় পাকিস্তান

অনলাইন ডেস্ক: ভারতের সেনাবাহিনী পাকিস্তানের সীমান্তের কাছাকাছি এলাকায় ক্রমশই সরে আসছে। ভারত পাকিস্তানে যেকোনো মুহূর্তে হামলা চালাতে পারে এমন একটি আশঙ্কাও তৈরি হয়েছে পাকিস্তানে। এ প্রেক্ষাপটে উত্তরাঞ্চলে সতর্কাবস্থায় রয়েছে পাকিস্তান।

দেশটির প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ ইতোমধ্যে সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল রাহিল শরীফের সঙ্গে আলাপ করেছেন বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। পাকিস্তানের উত্তরাঞ্চলে এনিয়ে বেশ সতর্ক অবস্থা অবলম্বন করা হচ্ছে। খবর  বিবিসির।

পাকিস্তানের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা পিআইএ'র একজন মুখপাত্র জানিয়েছেন, সকাল থেকে গিলগিট, স্কার্দু ও চিত্রাল এলাকায় 'বিমান পথ বন্ধ করে দিয়েছে দেশটির বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ'।

ভারত পাকিস্তানকে আক্রমণ করতে পারে এমন আশঙ্কায় এসব ফ্লাইট বন্ধ রাখা হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইসলামাবাদ ও পেশোয়ারের মধ্যকার মূল মহাসড়কের কিছু অংশও বন্ধ রাখা হয়েছে।

কর্মকর্তারা বলছেন, সংস্কারের জন্য মহাসড়ক বন্ধ করা হয়েছে। কিন্তু এই মহাসড়ক যুদ্ধবিমানের ওঠানামায় ব্যবহার করা সম্ভব।

ভারত শাসিত কাশ্মীরের উরিতে একটি সেনা ঘাটিতে গত রোববার রাতে একদল বন্দুকধারীর হামলায় ১৭ জন সৈন্য নিহত হওয়ার পর ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং পাকিস্তানকে একটি সন্ত্রাসী রাষ্ট্র বলে আখ্যায়িত করেন।

রোববারের এই হামলার পেছনে পাকিস্তানের পরোক্ষ বা প্রত্যক্ষ ভূমিকা ছিলো বলে মনে করছেন ভারতের অনেক সেনা কর্মকর্তা বা নিরাপত্তা বিশ্লেষক।
ভারত কীভাবে এর জবাব দেবে তা ঠিক করার জন্য দিল্লিতে সিনিয়র মন্ত্রীদের সাথে এক বৈঠক করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

ভারত তার প্রাথমিক প্রতিক্রিয়ায় বলেছে, পাকিস্তান ভিত্তিক জয়েশ-এ-মুহম্মদ নামের একটি জঙ্গি গোষ্ঠী এ ঘটনা ঘটিয়েছে। তবে এ ঘটনায় জড়িত থাকার কথা জোরালোভাবে অস্বীকার করেছে পাকিস্তান।

কিন্তু বিষয়টিকে কেদ্র করে দু'দেশের মধ্যে নতুন করে আবারো উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

এদিকে, ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদি আজ অথবা কাল মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে কাশ্মীর নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করবেন। বলা হচ্ছে যে এই বৈঠক থেকে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এছাড়া নিরাপত্তা বিষয়ক মন্ত্রিসভা কমিটিও কাশ্মীর পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করবে বলে কথা রয়েছে। কাশ্মীর উপত্যকা আজ ৭৪তম দিনের মত অচল হয়ে রয়েছে। সেখানে বিক্ষোভ ও সংঘর্ষ অব্যাহত রয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় কাশ্মীরে আরও ৬৪ জন তরুণকে গ্রেপ্তার করেছে।
ডি.স/আ.হু

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ