বুধবার ১২ আগস্ট ২০২০
Online Edition

হরতাল অবরোধের দু’টি মামলায় আগৈলঝাড়ায় ১৫ বিএনপি নেতাকর্মী জামিনে মুক্ত

আগৈলঝাড়া (বরিশাল) সংবাদদাতা : দেশ ব্যাপী বিএনপি ও জামায়াতের ডাকা হরতাল অবরোধে বরিশালের আগৈলঝাড়ায় পেট্রোল ঢেলে বিআরটিসি গাড়ি ও ফলবাহি পিকাপ ভ্যানসহ দু’টি গাড়ি পোড়ানো মামলায় বিএনপির চার্জশিটভুক্ত ১৫ জন আসামীকে হাইকোর্ট জামিন মঞ্জুর করলে গতকাল মঙ্গলবার বরিশাল জেল হাজত থেকে জামিনে মুক্ত হয় তারা।
মামলা ও আইনজীবী সূত্রে জানাগেছে, আগৈলঝাড়ায় পেট্রোল ঢেলে বিআরটিসি গাড়ি ও ফলবাহি পিকাপ ভ্যানসহ দু’টি গাড়ি পোড়ানো মামলায় বিএনপির চার্জশিটভুক্ত ১৫ জন আসামী গত ২৯ মার্চ বরিশাল জেলা স্পেশাল জজ দীলিপ কুমার ভৌমিকের আদালতে আত্মসমর্পন করে জামিন প্রার্থনা করলে বিজ্ঞ আদালত আসামীদের জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। আসামীর পক্ষ থেকে হাইকোর্টে জামিন আবেদন করলে হাইকোর্ট তাদের ১ বছরের অন্তর্বর্তিকালিন জামিন মঞ্জুর করেন। হাইকোর্টের আদেশে আসামীদের আইনজীবী এ্যাড. জাহিদুল ইসলাম পান্না গত ২৫ এপ্রিল জেলা স্পেশাল জজ দীলিপ কুমার ভৌমিকের আদালতে জামিন নামা দাখিল করেন। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে তারা আদালতের নির্দেশে বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে  মুক্তি পান।
কারা মুক্ত নেতারা হলেন-ফলবাহি পিকআপ পোড়ানো মামলায় উপজেলা যুবদল আহ্বায়ক আরিফ হোসেন ফিরোজ, যুবদল নেতা তারেক ফকির, সালমান হাসান রিপন, লিটন, বুলবুল, আব্দুল গফফার গাজী। বিআরটিসি গাড়ি পোড়ানো মামলার আসামীরা হলেন বরিশাল জেলা উত্তর যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহ্ মো: বখতিয়ার, বিএনপি নেতা আনোয়ার শাহ্, যুবদল নেতা মেনহাজ ফকির, আবুল হোসেন মোল্লা, সালমান হাসান রিপন, লিটন শিকদার, কিবরিয়া, হাসান, দীলিপ বিশ্বাস, সাবেক ভিপি সেলিম হোসেন সরদার। আদালতে পাবলিক প্রসিকিউটরের পক্ষে ছিলেন এ্যাড. জাহাঙ্গীর হোসেন ও আসামী পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ্যাড. নাজিম উদ্দিন পান্না, এ্যাড. জাহিদুল ইসলাম পান্না।
উল্লেখ্য, আগৈলঝাড়া থেকে বেনাপোলগামী বিআরটিসি বাস (ঢাকা মেট্রো-ব-১১-১৪২৪) উপজেলা সদরে শহীদ আব্দুর রব সেরনিয়াবাত ডিগ্রী কলেজ গেটে পার্কিং করা অবস্থায় ২০১৫ সালের ১৩ জানুয়ারি রাত তিনটার দিকে পেট্রোল ঢেলে অবরোধকারীরা আগুনে পুড়িয়ে দেয়। অন্যদিকে অবরোধ চলাকালে আগৈলঝাড়া-গোপালগঞ্জ মহাসড়কের বাইপাস সড়কে কুয়াতিয়ারপাড় এলাকায় ২০১৫ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি গভীর রাতে একটি ফলবাহি মিনি ট্রাকে (খুলনা মেট্রো ন-১১-০৮৩৩) পেট্রোল দিয়ে অগ্নি সংযোগ করে অবরোধকারীরা। ওই দুটি ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে পৃথক মামলা করে। দীর্ঘ তদন্ত শেষে ওই মামলায় চার্জশিট প্রদানের পর আসামীরা পলাতক থেকে আদালতে হাজির হয়ে জামিন প্রার্থনা করলে আদালত তাদের জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ