রবিবার ০৯ আগস্ট ২০২০
Online Edition

জেলা আ’লীগ সভাপতি মিলনের ছেলেসহ ৪১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল

যশোর সংবাদদাতা : যশোর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শহিদুল ইসলাম মিলনের ছেলে পিয়াসসহ ৪১ জনের বিরুদ্ধে দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টির অভিযোগ এনে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেছে পুুলিশ। ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের আগে পুলিশের করা একটি জিডির প্রেক্ষিতে সম্প্রতি তাদের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়েছে। উপশহর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এসআই বিপ্লব হোসেন এ অভিযোগপত্র দাখিল করেছেন।
পিয়াস ছাড়াও অভিযুক্ত অন্যরা হচ্ছে- সদর উপজেলার সাহাপুর গ্রামের হারেজ আলীর ছেলে হাসান, তালবাড়িয়া গ্রামের মৃত হাশেম আলীর ছেলে জাকির হোসেন, আব্দুস সাত্তার মাস্টারের ছেলে তুহিন, পাঁচবাড়িয়া গ্রামের তফসির মোল্লার ছেলে বিল্লাল হোসেন, কোবায়েত মোল্লাল ছেলে সবুজ, মধুগ্রামের আব্দুল হাকিমের ছেলে মাসুদ, তালবাড়িয়া গ্রামের মশিয়ার রহমানের ছেলে সোহেল, উপশহর সি-ব্লকের মঞ্জুরুল আলমের ছেলে মুনসুর রহমান, মনিরুল ইসলামের ছেলে টমাস, মৃত আব্দুর রহমানের ছেলে সবুজ, সদর উপজেলার বোলপুর গ্রামের মৃত হানিফ আলী মোল্লার ছেলে হাসানুল রহমান টুটুল, শেখহাটির মৃত হাশেম আলীর ছেলে গফ্ফার, মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে আব্দুল, মৃত আমজেদ আলী মোল্লার ছেলে ইসরা মোল্লা, মৃত হাশেম মোল্লার ছেলে সাঈদ মোল্লা, আব্দুল মজিদের ছেলে ইমদাদ, আমিরুল ইসলামের ছেলে ঝন্টু, সেলিমের ছেলে সাকিল, মোশারফের ছেলে জাহিদ, মহিউদ্দিনের ছেলে  কামরুল, জালাল মুন্সীর ছেলে মামুন, শেখহাটি বাবলাতলার ইশারত আলীর ছেলে শামীম হোসেন, আড়পাড়া গ্রামের ওলিয়ার রহমানের ছেলে মধু, গোলাম মোস্তফার ছেলে রানা, ঘুরুলিয়া গ্রামের সলেমান মোল্লার ছেলে আসলাম, বড় বালিয়াডাঙ্গা গ্রামের ফজলে করিমের ছেলে আজমল, সাহাপুর গ্রামের মৃত সাকায়াত আলীর ছেলে কাওছার আলী, শেখহাটির আব্দুর রব মুন্সীর ছেলে কাইয়ুম, ঘুরলিয়া গ্রামের কাজী কাশেম আলীর ছেলে কবির হোসেন ও হাবিব হোসেন, কিসমত নওয়াপাড়া গ্রামের মৃত মজিবর মোল্লার ছেলে আনোয়ার হোসেন লাল্টু, তালবাড়িয়া গ্রামের আজিবর ফকিরের ছেলে ইসা, মালিয়াট গ্রামের আলী ফকিরের ছেলে ইনতাজ, তালবাড়িয়া গ্রামের জাফরের ছেলে আজিম, আড়পাড়া গ্রামের মৃত সাখাওয়াত আলীর ছেলে অহিদুল, ছাক্কার বিশ্বাসের ছেলে বজলু, খোকনের ছেলে নাজমুল ও উপশহর ই-ব্লকের আব্দুল হকের ছেলে মনিরুজ্জামান বাবু।
অভিযোগপত্রে পুলিশ উল্লেখ করেছে, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে নৌকা প্রতীক ও ধানের শীষ প্রতীক সমর্থকরা উপশহর বি-ব্লক বাজারে গোলাযোগ করছে এ খবর পেয়ে গত ১৬ মার্চ রাত সোয়া আটটার দিকে পুলিশ সেখানে যায়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে গোলাযোগ করা লোকজন দৌঁড়ে পালিয়ে যায়। পরে তদন্তে জানা যায় উক্ত অভিযুক্তরা ৩১ মার্চের নির্বাচন উপলক্ষে নৌকা ও ধানের শীষ প্রতীকের লোকজন। তারা পক্ষে-বিপক্ষে প্রচারণাকালে গোলাযোগের সৃষ্টি হয়। উল্লেখিত ব্যক্তিরা নওয়াপাড়া ও উপশহর নির্বাচনী এলাকায় বড় ধরনের গোলাযোগ সৃষ্টি করতে পারে বলে সম্ভাবনা রয়েছে। আর তাদের বিরুদ্ধে নির্বাচন উপলক্ষে এলাকার শান্তি-শৃঙ্খলা বিঘ্ন ঘটানোর তথ্য প্রমাণ পাওয়া গেছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ