ঢাকা, সোমবার 1 June 2020, ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৮ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ভারতের বাজারে চালু নোটে মারাত্বক জীবাণু

ভারতের কোটি কোটি মানুষ রোজ যে সব টাকার নোটগুলো নিয়ে নাড়াচাড়া করেন, তা থেকে তাদের নানা মারাত্মক সংক্রামক ব্যাধি ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে বিজ্ঞানীরা আশঙ্কা ব্যক্ত করেছেন।
দিল্লির ইন্সটিটিউট অব জিনোমিকস অ্যান্ড ইন্টিগ্রেটিভ বায়োলজি-র বিজ্ঞানীরা বলছেন, যে সব নোট পুরনো হয়ে গেছে বা দশ-বিশ-একশো রুপির যে সব নোট বেশি চালু, সেগুলোই বেশি বিপজ্জনক বলে পরীক্ষায় দেখা গেছে।
ইন্সটিটিউট-এর বিজ্ঞানীরা ভারতের বাজারে চালু নোটগুলোর ডিএনএ পরীক্ষা করে তাতে অন্তত ৭৮ রকম বিপজ্জনক মাইক্রোবের অস্তিত্বের প্রমাণ পেয়েছেন – যা থেকে মারাত্মক সব রোগ ছড়াতে পারে।
পাঁচ সদস্যের ওই গবেষক দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন বিজ্ঞানী ড: এস রামচন্দ্রন, তিনি বিবিসিকে জানিয়েছেন এই সব নোটগুলো পরীক্ষা করে তারা যক্ষ্মা, ডিসেন্ট্রি বা আলসার ছড়াতে পারে এমন সব জীবাণুর সন্ধান পেয়েছেন।
ছোট মাপের নোটগুলো যেহেতু বেশি হাতে হাতে ঘোরে, তাই সেগুলো থেকেই সংক্রমণের সম্ভাবনা বেশি থাকে।
জাপানসহ কিছু কিছু দেশে নিয়মিত ব্যবধানে যন্ত্রের সাহায্যে কারেন্সি নোট জীবাণুমুক্ত করার ব্যবস্থা থাকলেও ভারতে সেরকম কিছু নেই, যদিও পুরনো নোট ব্যাঙ্কে গিয়ে বদলানো সম্ভব।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ