ঢাকা, বুধবার 23 September 2020, ৮ আশ্বিন ১৪২৭, ৫ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

শিবির কর্মী আটক : সকালে স্বীকার করলেও বিকেলে 'রহস্যজনক অস্বীকার' পুলিশের

অনলাইন নিউজ ডেস্ক : রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন কাটাখালী আবহাওয়া অফিসের পাশে শ্যামপুর (নানার বাড়ি) থেকে সবুজ আলী নামের এক শিবির কর্মীকে আটকের পর সকালে স্বীকার করে বিকেলে ‘রহস্যজনকভাবে অস্বীকার’ করছে মতিহার থানা পুলিশ।

সোমবার দিবাগত রাত ১টার দিকে তাকে আটক করা হয়।

সবুজের বাবা সাদেক মন্ডল অভিযোগ করে বলেন, আটকের পর সকালে পরিবার থেকে ৩/৪ জন থানায় গিয়ে সবুজের সাথে দেখা করি এবং খাবার দেই। এরপর দুপুরে আবার খাবার নিয়ে দেখা করতে গেলে থানার দায়িত্বরত পুলিশ কর্মকর্তারা বলেন, সবুজ নামের কেউ এখানে নেই এবং এ নামের কাউকে কাউকে আটক করা হয়নি। এমন খবর শোনার পর থেকেই আমাদের মধ্যে ভীতি কাজ করছে।

তিনি আরো বলেন, সবুজের সাথে রিপন নামের আরেক জন ছেলেকে আটক করা হয়। থানায় তাদের সাথে থাকা আরো তিন জনকে সকালে দেখেছিলাম। পরে তাদেরকে আদালতে পাঠানো হয়। কিন্তু সবুজ এবং রিপনকে এখনো কেন আদালতে হাজির করা হচ্ছে না এবং পুলিশের পক্ষ থেকে অস্বীকার করে বলা হচ্ছে তাদের কাউকে আটক করা হয়নি বা থানায় সবুজ নামের কেউ নেই।

এদিকে মঙ্গলবার সকালে কাজল রেখা নামের এক নারী পুলিশ কর্মকর্তা আটকের বিষয় স্বীকার করে বলেন, সবুজ নামের একজনকে আটক করা করা হয়েছে এবং সে থানায় আছে।

অপরদিকে বিকেলে আটকের বিষয়টি অস্বীকার করে মতিহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুর রউফ বলেন, ‘সবুজ নামের কাউকে আটক করা হয়নি এবং আমার নলেজে এমন কোন বিষয় নেই।’

আটককৃত শিবির কর্মী বিনোদপুর ইসলামিয়া কলেজের ডিগ্রি প্রথম বর্ষের বর্ষের শিক্ষার্থী এবং নগরীর মির্জাপুর পূর্বপাড়ার সাদেক মণ্ডলের ছেলে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ