ঢাকা, ‍শনিবার 18 September 2021, ৩ আশ্বিন ১৪২৮, ১০ সফর ১৪৪৩ হিজরী
Online Edition

কক্সবাজারে শতাধিক রোহিঙ্গা আটক, বিজিবি সুবেদার গুলিবিদ্ধ

অনলাইন নিউজ ডেস্ক : কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশকারি ১০৮ রোহিঙ্গাকে আটল করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)। এ সময় এক দালালের গুলিতে বিজিবির সুবেদার ফজলুল হক গুলিবিদ্ধ হন। বিকেলে তাঁকে হেলিকপ্টারে করে ঢাকায় পাঠানো হয়।
আজ শুক্রবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বালুখালী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও বিজিবি সূত্র জানায়, গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে টেকনাফ উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের কাটাখালী গ্রামে শাহ আবদুল কাদের ফকিরের বার্ষিক ওয়াজ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ওই মাহফিলে মিয়ানমার থেকে অবৈধভাবে আসা অনেক রোহিঙ্গা অংশ নেয়। আজ শুক্রবার সকালে চারটি চান্দের গাড়িতে (খোলা জিপ) করে শতাধিক রোহিঙ্গা মাহফিল থেকে উখিয়ার দিকে যেতে থাকে। এ সময় বালুখালী পানবাজার এলাকায় বিজিবির সদস্যরা গাড়ি থামিয়ে রোহিঙ্গাদের আটক করেন। এর প্রতিবাদে স্থানীয় কিছু দালাল ‘টেকনাফ-কক্সবাজার মহাসড়কে’ ব্যারিকেড দিয়ে রোহিঙ্গাদের ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করে। এ সময় বিজিবির সদস্যরা তাদের সরিয়ে দিতে চাইলে দালালেরা গুলি চালায়। এতে বিজিবি সুবেদার ফজলুল হক গুলিবিদ্ধ হন। এরপর বিজিবির সদস্যরা ফাঁকা গুলি করলে দালালেরা ইটপাটকেল ছুড়তে ছুড়তে পালিয়ে যায়। পরে ধাওয়া করে বিজিবির সদস্যরা জিপ গাড়ির চালক শাহ আলমগীরকে আটক করেন।

এ ঘটনার জন্য বিজিবি সদস্যরা ওই এলাকার স্থানীয় চেয়ারম্যান গফুর উদ্দিন চৌধুরীকে দায়ী করেছে।

সুবেদার ফজলুল হককে প্রথমে উখিয়ার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এবং পরে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু অবস্থার অবনতি হলে বিকেলে ফজলুল হককে হেলিকপ্টারে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। তাঁর কাঁধে গুলি লেগেছে। আটক করা ১০৮ জন রোহিঙ্গাকে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হচ্ছে।

ঘটনার পর থেকে ওই এলাকা পুলিশ ও বিজিবি সদস্যরা দালালদের আটকের জন্য অভিযান শুরু করেছে।

প্রসঙ্গত এর আগে ভোরে একই সীমান্ত দিয়ে আরো ২৯ রোহিঙ্গাকে আটক করে মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো হয়েছে। 

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ