ঢাকা, মঙ্গলবার 29 September 2020, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

কর্মসূচী সফল হওয়ায় সরকারের নৈতিক পরাজয় হয়েছে: খেলাফত মজলিস

আজকের কর্মসূচী সফল হওয়ায় ফ্যাসীবাদী সরকারের নৈতিক পরাজয় হয়েছে। ৫ জানুয়ারীর কলংকিত নির্বাচন দেশবাসী যে প্রত্যাখ্যান করেছে তা আবারো প্রমানিত। পুলিশ ও সরকারী বাহিনীর হত্যা, গ্রেফতার, নির্যাতন, গুলি, টিয়ারসেল উপেক্ষা করে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে আজকে জনতার মিছিল সমাবেশ সরকারের জনবিচ্ছিন্নতার প্রমাণ উল্লেখ করে খেলাফত মজলিসের আমীর অধ্যক্ষ মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেন, চূড়ান্ত বিজয় অর্জিত না হওয়া পর্যন্ত ফ্যাসিবাদী সরকারের একদলীয় দু:শাসনের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনকে অব্যাহত রাখতে হবে। দেশের মানুষের কথা বলার অধিকার, ভোটের অধিকার, সভা-সমাবেশের অধিকার কেড়ে নিয়ে ক্ষমতায় আকড়ে থেকে একদলীয় শাসন প্রলম্বিত করার খায়েশ দেশের জনগণ পূরণ হতে দেবে না।
বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় আজকের কর্মসূচী চলাকালে সরকারের পেটোয়াবাহিনী মুক্তিকামী জনতার উপর যেভাবে হামলা চালিয়েছে, গ্রেফতার নির্যাতন চালিয়েছে তার তীব্র নিন্দা জানান। বিশেষকরে নাটোরে হত্যা, সুপ্রীম কোর্টে আইনজীবীদের মিছিলে হামলা, প্রেসক্লাবে ভিতরে হামলা, খালেদা জিয়াকে তার কার্যালয়ে আবদ্ধ করে রাখা, বিএনপি চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালয়ের মূল ফটকে বাইরে থেকে তালা দিয়ে ভিতরে পুলিশের পিপার স্প্রে নিক্ষেপের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে নেতৃদ্বয় বলেন এভাবে বর্বরোচিত আক্রমন ও জুলুম-নির্য়াতন চালিয়ে জনতার আন্দোলনেকে দমন করা যাবে না।
বিবৃতিতে নেতৃদ্বয় আগামীকাল থেকে সারাদেশে ২০-দলীয় জোট ঘোষিত অনির্দিষ্টকালের সর্বাত্মক অবরোধ কর্মসূচী সফলের আহ্বান জানান। সাথে সাথে অবিলম্বে সরকারকে গণদাবী মেনে সবদলের অংশগ্রহণে একটি অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের ঘোষণা দিয়ে পদত্যাগের আহবান জানান। আজ সারাদেশে ২০-দলীয় জোটের গ্রেফতারকৃত সকল নেতা-কর্মীর অবিলম্বে নি:শর্ত মুক্তি দেয়ার দাবী জানান তারা।- প্রেস বিজ্ঞপ্তি




অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ