ঢাকা, মঙ্গলবার 29 September 2020, ১৪ আশ্বিন ১৪২৭, ১১ সফর ১৪৪২ হিজরী
Online Edition

আসামে বডো হামলায় নিহত ৪০

ভারতের আসামের পাঁচ-ছ’টি জায়গায় একই সময়ে হামলা চালাল এনডিএফবি (সংবিজিৎ) বাহিনীর বড়ো বিদ্রোহীরা। স্বয়ংক্রিয় রাইফেলের গুলিতে ঝাঝরা হলেন আট থেকে আশির অনেকে। পুলিশের আশঙ্কা, বিদ্রোহীদের হামলায় নিহতের সংখ্যা কমপক্ষে ২০ জন। তবে, নিহতের সংখ্যা অন্তত ৪০ জন বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। হতাহতের সংখ্যা আরও বাড়তে পারে।

পুলিশ সূত্রের খবর, মঙ্গলবার সন্ধ্যায় শোণিতপুরের বাতাসিপুর, পাভৈ, হাতিজুলি এবং কোকরাঝাড়ের পাখিরিগুড়ি, উল্টাপানি, মধুপুর, সেরফাংগুড়িতে হানা দেয় সশস্ত্র বিদ্রোহীরা। আদিবাসী গ্রামগুলিতে ঢুকে তারা এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে। রাত পর্যন্ত ভুটান এবং অরুণাচলের সীমানা সংলগ্ন গ্রামগুলি থেকে হতাহতদের বিস্তারিত হিসাব পাওয়া যায়নি। আজতের সংখ্যা আরও বেশি। শোণিতপুরের এসপি সংযুক্তা পরাশর জানিয়েছেন, পাখিরিগুড়িতেই প্রথম হামলা চালায় বিদ্রোহীরা। সেখানে মৃত্যু হয় সোনাই মুর্মূ (১০), সুনিতা হালদার (১৬), মরিয়ম মুর্মূ (৪৫) এবং মুন্নি বেসরার (২৭)। আহত হন কয়েক জন। অসমর্থিত সূত্রে খবর, শোণিতপুরের মৈতালুবস্তিতেও হানা দিয়েছে বিদ্রোহীরা। সেখানেও অনেকে হতাহত হয়েছেন। প্রত্যন্ত ওই সব এলাকার দিকে নিরাপত্তা বাহিনী রওনা দিয়েছে।– সংবাদ সংস্থা

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ