সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০
Online Edition

৯ ফেব্রুয়ারির পর সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল

স্টাফ রিপোর্টার : আগামী ৯ ফেব্রুয়ারির পর জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার মোঃ শাহনেওয়াজ।

গতকাল রোববার নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন তিনি। এ দিকে আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি দেশের ৪০টি জেলার ৯৮টি উপজেলা নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ৩৯২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

শাহনেওয়াজ জানান, সংসদের বিভিন্ন দলের প্রার্থীদের জোট গঠনের বিষয়ে নির্বাচন কমিশনকে অবহিত করার পর ২১ দিন সময় দিতে হয়। এই ২১ দিন অতিবাহিত হওয়ার পর সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার বিধান রয়েছে। আর সে ক্ষেত্রে ৯ ফেব্রুয়ারির আগে জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত নারী আসনে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার আইনগত কোনো সুযোগ নেই বলে জানান তিনি।

এ দিকে আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি দেশের ৪০টি জেলার ৯৮টি উপজেলা নির্বাচনে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষার্থে ৩৯২ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

নির্বাচন কমিশনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় প্রতিটি উপজেলায় ৪ জন করে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের অনুমোদন দেয়। নির্বাচন কমিশনের তফশিল অনুযায়ী, আগামী ১৯ ফেব্রুয়ারি দেশের ৪০টি জেলার ৯৮টি উপজেলায় চেয়ারম্যান, ভাইস-চেয়ারম্যান এবং মহিলা ভাইস-চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

গত ২৮ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশন প্রতিটিতে ৪ জন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের জন্য জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেয়।

এ সংক্রান্ত চিঠিতে বলা হয়, নির্বাচন কমিশনের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ভোটগ্রহণের পরের দিন ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিটি উপজেলায় একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্ব পালন করবেন।

এছাড়া ভোট গ্রহণের ২ দিন আগে ১৭ ফেব্রুয়ারি থেকে ভোটগ্রহণের পর দিন ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রতিটিতে ৩ জন করে দায়িত্ব পালন করবেন।

মোবাইল কোর্ট আইন, ২০০৯ এর আওতায় নির্বাচনী এলাকার আইন-শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ প্রতিরোধ কার্যক্রম এবং নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন সংক্রান্ত মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য প্রতিটি উপজেলায় ৪ জন করে ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের জন্য সংশ্লিষ্ট জেলা ম্যাজিস্ট্রেটকে মন্ত্রণালয়কে অবহিত করতে বলা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ