শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বাংলাদেশ সব সময় আমাদের বিপক্ষে লড়াই করে : সাঙ্গাকারা প্রথম টেস্টে ব্যর্থ হলেও এবার সম্পূর্ণ প্রস্তুত : সাকিব

চট্টগ্রাম  অফিস : চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছে সফরকারী ক্রিকেট দল শ্রীলঙ্কা ও স্বাগতিক ক্রিকেট দল বাংলাদেশ। গতকাল রোববার সকাল ৯টায় দ্বিতীয় টেস্টের প্রথম দিনে অনুশীলন করে সফরকারী শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। প্রায় ঘণ্টা ধরে অনুশীলন করে তারা। ঢাকায় বিশাল জয়ের পরও আত্মতুষ্টিতে ভুগছে না শ্রীলঙ্কা। বরং মঙ্গলবার থেকে শুরু হতে যাওয়া টেস্টের জন্য সর্বোচ্চ প্রস্তুতিই নিয়ে রাখছে তারা। অনুশীলন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দলের অন্যতম ব্যাটিং ভরসা কুমার সাঙ্গাকারা। তিনি জানান, প্রথম টেস্টে ইনিংস ও ২৪৮ রানের বড় জয়ের পরও দ্বিতীয় টেস্টে স্বাগতিকদের কোনো ছাড় দেবে না শ্রীলঙ্কা। আবারো খাটো লেন্থের বল দিয়ে স্বাগতিকদের বিধ্বস্ত করার পরিকল্পনা উড়িয়ে দিচ্ছেন না তিনি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সব সময় আমাদের বিপক্ষে লড়াই করে। ওরা শ্রীলঙ্কায় টেস্ট সিরিজ লড়ে হেরেছিল, ওয়ানডে সিরিজ ১-১ ব্যবধানে ড্র করেছিল। আমরা যতটা ভেবেছিলাম, প্রথম ম্যাচ তার চেয়ে সহজ ছিল। তবে এখানে ভিন্ন কিছুর প্রত্যাশা আমাদের। অপরদিকে রোববার দুপুরে অনুশীলন করে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। গতকাল চট্টগ্রামে প্রথম দিনের অনুশীলনের এক পর্যায়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন বাংলাদেশ দলের অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। মিরপুর শোচনীয় হারের পর চট্টগ্রাম টেস্টে ঘুরে দাঁড়াতে হলে ফিল্ডিংয়ে উন্নতি করাটা সবচেয়ে জরুরি বলে মনে করেন তিনি। সাকিব আল হাসান বলেন, সব জায়গাতেই উন্নতি করতে হবে। ফিল্ডিং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ওদের যারা বড় রান পেয়েছে তাদের সবাই জীবন পেয়েছে। সুযোগগুলো হাতছাড়া না হলে ওদের এতো রান হতো না। পাঁচশ’ আর সাতশ’ রান এক রকম শোনায় না। অতিথিরা প্রথম ইনিংসে সাতশ’ রানের বিশাল সংগ্রহ দাঁড় করানোয় ম্যাচ বাঁচানো ভীষণ কঠিন হয়ে পড়েছিল। ওরা সাতশ’ রান করার পর জানতাম দুই দিন ব্যাট করা ছাড়া এখন আর কোনো উপায় নাই। তখন এটা ছিল অনেক কঠিন। কিন্তু চারশ’ হলে আমরা জানতাম, ভালো ব্যাটিং করলে ওরা আবার ব্যাটিংয়ে নামবে। তিনি বলেন, টানা দেড়-দুই বছর ভালো ক্রিকেট খেলার পর একটি ম্যাচে বাজে খেলতেই পারে কোনো দল। তবে সেখান থেকে ঘুরে দাঁড়ানোটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তার কাছে। ইনিংস ও ২৪৮ রানে হারের ধাক্কা দল কাটিয়ে উঠেছে জানিয়ে সাকিব বলেন, এর আগেও কিন্তু এরকম পরিস্থিতি থেকে আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি এবং তা দৃঢ়ভাবেই। সুতরাং এই অভিজ্ঞতা আমাদের আছে। আশা করি সমস্যা হবে না। সবাই পরের ম্যাচের দিকে মনযোগ দিচ্ছে। প্রথম টেস্টে খাটো লেন্থের বল দিয়ে স্বাগতিক ব্যাটসম্যানদের ভুগিয়েছে শ্রীলঙ্কার পেসাররা। খাটো লেন্থের বলের জন্য প্রস্তুত না থাকায় প্রথম টেস্টে ব্যর্থ হলেও এবার তারা সম্পূর্ণ প্রস্তুত বলে জানান সাকিব। গতকাল শনিবার বিকাল সাড়ে চারটায় নভো এয়ার ও রিজেন্ট এয়ারওয়েজের পৃথক ফ্লাইটে চট্টগ্রামে এসে পৌঁছায় বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট দল। ওইদিন বিকাল ৫টা ১৫ মিনিটের দিকে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থায় হোটেল পেনিনসুলালয় ওঠে দল দু’টি। ৪ ফেব্রুয়ারি সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট শুরু হবে চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে। এছাড়া একই স্টেডিয়ামে ১২ ও ১৪ ফেব্রুয়ারি দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচও খেলার কথা রয়েছে তাদের।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ