মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০
Online Edition

বাড়ি-ঘর

রওশন মতিন

 

সারি সারি-কিছুটা এলোমেলো বাড়ি-ঘরগুলো

যেন কৌতূহলের অবগুণ্ঠনে আবৃত

হেঁয়ালীর মতো কখনো অলৌকিক,

কুয়াশার চাদর সরে গেলে

স্পষ্টতায় চেয়ে থাকে অপলক।

 

ঘাস আর শিশিরের মতো অভিন্ন হৃদয়,

কুঁড়েঘর থেকে সুরম্য ইমারত

সুখ-দুঃখ চাওয়া-পাওয়ার একই সমতলে

জীবনের টুকরো টুকরো গল্প নিয়ে

মানুষের একান্ত প্রিয় অন্বিষ্ট আশ্রয়।

 

বেঁচে থাকা-সাধ আর সাধ্যের গরমিল,

নিজস্ব স্বাচ্ছন্দের অনাবিল প্রকাশ,

মহাকালে প্রবাহে মানুষের আদলের ছাপ

কখনো কুঁড়েঘর কখনো ইমারত হয়,

বদলে যায় শুধু নিয়ম ও আঙ্গিক,

কিন্তু মানুষ কখনোই বদলায় না।

 

অন্ধকার ফুঁড়ে সূর্য উঠার মতো

দৈনন্দিন আলোকিত জীবন,

যেন হাতের মুঠোয় অনন্ত আকাশ,

রান্নাঘর থেকে শোবার বেডরুম পর্যন্ত

খুঁটি-নাটি প্রতিটি জিনিস

একান্ত আপন পরিচয়ের সান্নিধ্য থেকে

আমাদের কাছে ডাকে গভীর ঘনিষ্ট প্রিয়জন,

জানায় স্বাগতঃ সাদর সম্ভাষণ,

ঘুম নয় তবু প্রগাঢ় ঘুমে আত্মারা

কথা কয় অন্তরঙ্গ কথোপকথন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ