বৃহস্পতিবার ০২ জুলাই ২০২০
Online Edition

নটরডেম কলেজকে ধ্বংস করার পাঁয়তারা চলছে

নটরডেম শিক্ষা ঐতিহ্য রক্ষা কমিটির উদ্যোগে গতকাল শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় বক্তারা বলেছেন, নটরডেম কলেজের শিক্ষা ঐতিহ্য ধ্বংস করার জন্য গভীর ষড়যন্ত্র চলছে। দেশের ভালো ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংসের পর এখন নটরডেম কলেজ ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র চলছে। বক্তারা বলেন, বিশ্বের প্রায় প্রতিটি দেশে মিশনারী স্কুল কলেজকে বিশেষ সুযোগ-সুবিধা দেয়া হয়। তারা নিজস্ব পদ্ধতিতে স্কুল কলেজ পরিচালনা করে আসছে। ৬৩ বছর ধরে নটরডেম কলেজও নিজস্ব পদ্ধতিতে শিক্ষাদান করে সুনাম সুখ্যাতি অর্জন করে এসেছে। বক্তারা বলেন, অনলাইনে ভর্তি সিস্টেম জনস্বার্থ বিরোধী। তাই দেশের প্রতিটি কলেজের ছাত্র-অভিভাবকসহ কর্তৃপক্ষকে মৌলিক অধিকার হরণকারী অনলাইনে ভর্তি সিস্টেমের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে হবে। তা না হলে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা আরো ধ্বংস হয়ে যাবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যামেরিটাস অধ্যাপক ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. আ.আ.ম.স আরেফিন সিদ্দিক। উদ্বোধক ছিলেন সাবেক সচিব শাহজাহান সিদ্দিকী বীর বিক্রম। বিশেষ অতিথি ছিলেন যথাক্রমে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. খোন্দকার আশরাফ হোসেন, ফারসী ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক ড. শাকির সবুর, নর্দার্ন ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার কর্নেল অব. একতেদার সিদ্দিকী। বক্তব্য রাখেন শিক্ষা ঐতিহ্য রক্ষা কমিটির সভাপতি শওকত শিকদার, মহাসচিব কবি বিপ্লব ফারুক, উপদেষ্টা মোঃ মাজেদুর রহমান তালুকদার, হাসরত খান ভাসানী, সাংগঠনিক সম্পাদক গোলাম কিবরিয়া বাদল এবং অনলাইনে ভর্তি সিস্টেমের বিরুদ্ধে রিটকারী ছাত্র অভিভাবক এডভোকেট কদম আলী মল্লিক।

শাহজাহান সিদ্দিকী বীর বিক্রম বলেন, শিক্ষা ঐতিহ্য রক্ষা কমিটি নয়, নটরডেম কলেজ রক্ষা কমিটি গঠন করতে হবে। কারণ নটরডেমকে ধ্বংস করার পাঁয়তারা চলছে। তিনি আরো বলেন, ৬৩ বছর যে নিয়মে নটরডেম কলেজ চলে এসেছে, সেই নিয়মে কলেজটিকে চলতে দিন। অন্যথায় আমরা নিয়মিত আন্দোলনে যেতে বাধ্য হবো।

হোসেন বলেন, দেশের একমাত্র ভালো কলেজ নটর ডেম, সেটাও অনলাইনের জন্য ধ্বংস হতে বসেছে। তাই আমরা আর বসে থাকতে পারি না। ড. শাকির সবুর বলেন, বাংলাদেশে মিশনারী স্কুল-কলেজগুলোই সুশিক্ষার আলো জ্বেলে রেখেছে। এখন শিক্ষা বোর্ড মোড়লিপনার মাধ্যমে সেই আলো নিভিয়ে দিয়ে দেশের শিক্ষাব্যবস্থার ভয়াবহ ক্ষতি করতে চাচ্ছে। ড. সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, অনলাইনে ভর্তি সিস্টেমটি হচ্ছে বাজে সিস্টেম। এই বাজে সিস্টেম বাংলাদেশের শিক্ষাব্যবস্থা ধ্বংস করে দেবে। আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, নটর ডেম কলেজের ব্যাপারে সরকারকে গুরুত্ব দিতে হবে। কলেজটিকে পূর্বের ন্যায় স্বাধীনতা দিতে হবে। তিনি আরো বলেন, আলোচনার মাধ্যমে বিষয়টি নিত্তি হতে পারে। তাই সরকারের প্রতি আহবান, বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে সমাধান করুন। তিনি বলেন, হাইকোর্ট রায় দিয়েছে কলেজের পক্ষে। সেই রায়ের আলোকে ছাত্র ভর্তি করে নেয়া হয়েছে। এখন শিক্ষা বোর্ড রেজিষ্ট্রেশন ফিসহ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র জমা না নিয়ে আদালত অবমাননা করছে। বিষয়টি আবার আদালতে তোলা উচিত। বক্তারা বলেন, ২৫৬৩ জন ছাত্রের ভবিষ্যৎ নিয়ে ছিনিমিনি খেলা করার অধিকার শিক্ষা বোর্ডের নেই। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ